সোমবার, ০৮ অগাস্ট ২০২২, ০৪:২২ পূর্বাহ্ন

শুক্রবার ফাইনালে বাংলাদেশ ও ভারত দু’দলই শিরোপা জিততে চায়

দুই ফুটবল অধিনায়ক শুভেচ্ছ বিনিময় করেছেন বাংলাদেশের তানভীর হোসেন ও ভারতের বিকাশ উমনাম -ছবি : বাফুফে

মুজিবুর রহমান বাবু, ই-কণ্ঠ টোয়েন্টিফোর ডটকম ॥ শুক্রবার ২৫ জুলাই শুরু হওয়া টুর্নামেন্টের ফাইনালে মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ ও স্বাগতিক ভারত। এটি টুর্নামেন্টে দুই দলের দ্বিতীয় সাক্ষাৎ। সাফ অনূর্ধ্ব-২০ চ্যাম্পিয়নশিপের শেষ লড়াইটা হাবে শুক্রবার।

দুপক্ষেই জেতার জন্য লড়বে। লিগ পর্বে দুই দলের লড়াইয়ে বাংলাদেশ জিতেছিল ২-১ গোলে। ভারতের ভুবনেশ্বরের কলিঙ্গ স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ-ভারত মহারণ শুরু হবে সন্ধ্যা সাড়ে ৭ টায়। আপনার সবাইমিলে আমাদের জন্য ফাইনালেও দোয়া চাইবেন যেন ম্যাচ জিতে আমরা ট্রফি নিয়ে দেশে ফিরতে পারি।’ কথাগুলো যার, তিনি বাংলাদেশ অনুর্ধ-২০ জাতীয় ফুটবল দলের অধিনায়ক তানভীর হোসেন। তানভীরের মনের কথাগুলোই বাংলাদেশী ফুটবলপ্রেমীদেরও।

জাতীয় দলের ম্যাচ হলে ভারতকেই ফেবারিট ধরা হতো; কিন্তু ম্যাচটি যেহেতু যুব দলের তাই এক তরফা ফেবারিট কেউ নয়। লিগ পর্বের পারফরম্যান্স বাংলাদেশের পক্ষে কথা বললেও স্বাগতিক বলে ভারতকেও সেই জায়গায় রাখতে হবে।

পাঁচবারের মোকাবেলায় হেড টু হেড পরিসংখ্যানে দুদল সমানে সমান। বাংলাদেশ ও ভারত জিতেছে ২ বার করে। বাকি একটি ম্যাচ ড্র হয়। এই টুর্নামেন্টে বাংলাদেশই একমাত্র দল যারা শতভাগ ম্যাচ জিতেছে। যে কারণে ট্রফিটা উঁচিয়ে ধরতে বাংলাদেশিই বেশি দাবিদার। লিগ পর্বে তিনটি ম্যাচই বাংলাদেশ ভালো খেলেছে। প্রথম ম্যাচে শ্রীলঙ্কাকে ১-০ গোলে হারিয়ে টুর্নামেন্ট শুরু করেছিল বাংলাদেশ। পরের ম্যাচে ভারতকে হারিয়েছিল ২-১ গোলে। মালদ্বীপকে ৪-১ গোলে হারানোর পর শেষ ম্যাচে বাংলাদেশ ১-১ গোলে ড্র করেছে নেপালের বিপক্ষে।

বাংলাদেশের কাছে হেরে টুর্নামেন্ট শুরু করা ভারত পরের তিন ম্যাচই জিতেছে। শ্রীলঙ্কাকে ৪-০ ও নেপালকে ৮-০ গোলে হারানোর পর শেষ ম্যাচে স্বাগতিকরা ১-০ গোলে হারিয়েছে মালদ্বীপকে।

ফাইনালের আগে দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-২০ দলের অধিনায়ক তানভীর হোসেন। তিনি বলেছেন, ‘সবার দোয়া ছিল বলে আমরা ফাইনালে উঠতে পেরেছি। সবার দোয়া নিয়েই চ্যাম্পিয়ন হয়ে দেশে ফিরতে চাই।’

ংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ কোচ পল স্মলি বলেন, ‘অবশ্যই ভারত শক্তিশালী দল। তাদের কিছু সুপার কোয়ালিটি প্লেয়ার আছে। তাছাড়া তারা স্বাগতিকও বটে। ফাইনালে তাদের হারানোটা সহজ হবে না। মনে হচ্ছে তাদের সঙ্গে কঠিন লড়াই করতে হবে।’ বাংলাদেশ অধিনায়ক তানভীরের ভাষ্য, ‘ফাইনাল পর্যন্ত আমরা পরিকল্পনা অনুযায়ী ধাপে ধাপে এগিয়েছি।

এখন ফাইনালেও যদি আমরা আমাদের স্বাভাবিক খেলা খেলতে পারি, তাহলে ইনশাল্লাহ্ আমরাই চ্যাম্পিয়ন হবো। আমরা শিরোপা জিততে আত্মবিশ্বাসী।’ ভারত কোচ শানমুগাম ভেঙ্কটেশ বলেন, ‘বাংলাদেশ অনেক ভাল দল। তাদের বেশকিছু মানসম্পন্ন খেলোয়াড় আছে। লীগ ম্যাচে তাদের সঙ্গে হেরেছি। তবে ফাইনাল হচ্ছে ভিন্ন একটি ম্যাচ এবং অন্য ব্যাপার।

কাজেই কারা জিতবে, আগেই বলা যাবে না।’ ভারত অধিনায়ক বিকাশ উমনাম বলেন, ‘ফাইনাল খেলতে আমরা প্রস্তুত। বাংলাদেশ অনেক সমীহ জাগানিয়া দল। তবে ফাইনালে তাদের হারাতে আমরা আত্মবিশ্বাসী। তবে অতি আত্মবিশ্বাসী নই।’

দলের কোচ পল স্মলি বলেছেন, ‘আমরা ফাইনালে চোখ রেখে টুর্নামেন্ট খেলতে এসেছিলাম। ফাইনালে উঠেছি। ছেলেরা অভিনন্দন পাওয়ার যোগ্য। এখন ফাইনাল সামনে রেখে সবাই রোমাঞ্চিত। আমরা লিগ পর্বে প্রতিটি দলের বিপক্ষে ডমিনেট করেছিল। ছেলেদের প্রতি আমি খুশি। আশা করি, তারা ফাইনালেও ভালো খেলবে।’

বাংলাদেশ একাদশ ॥ মো.আসিফ, তানভীর হোসেন, শাহীন মিয়া, আজিজুল হক, ইমরান খান, রফিকুল ইসলাম, শহিদুল ইসলাম, পিয়াস আহমেদ নোভা, মইনুল ইসলাম, নাহিয়ান ও আক্কাস আলী।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2020  E-Kantha24
Technical Helped by Titans It Solution