বৃহস্পতিবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০২:২২ অপরাহ্ন

রাজধানীতে স্বস্তি আনল রাতের বৃষ্টি

নিজস্ব প্রতিবেদক,ই-কণ্ঠটোয়েন্টিফোর ডটকম ॥ দিনটি ছিল ১৮ ভাদ্র। স্বাভাবিক ভাবেই দিনভর ছিল গুমোট গরম। এমনই কাঠফাটা রোদ আর টানা কয়েক দিনের ভ্যাপসা গরমের পর শুক্রবার রাতে হঠাৎ বৃষ্টিতে শহরজুড়ে এক ধরনের শীতলতার পরশ বিরাজ করছে। হঠাৎ বৃষ্টির স্বস্তিতে রাজধানীবাসী।

শুক্রবার (২ সেপ্টেম্বর) রাতের আকাশে ছিল না মেঘের ঘনঘটা, হঠাৎই ফোঁটা ফোঁটা বৃষ্টি শুরু হলো রাত ১০টার পর। কিছুক্ষণ পর সেই ফোঁটা ফোঁটা বৃষ্টি রূপ নিলো স্বস্তির বৃষ্টিতে। পৌনে এক ঘণ্টার মতো প্রশান্তির বৃষ্টি ভিজিয়ে দিল পুরো রাজধানীকে। সেই সঙ্গে অল্প পরিমাণে ছিল মেঘের গর্জন আর বিজলি।

আবহাওয়া অফিস আগেই জানিয়েছিল, মৌসুমি বায়ু সক্রিয় থাকায় দেশের কোথাও কোথাও অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে মাঝারি ধরনের ভারি থেকে অতি ভারি বর্ষণ হতে পারে। পরবর্তী তিন দিনেও বৃষ্টিপাতের প্রবণতা অব্যাহত থাকতে পারে।

শুক্রবার সকাল থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছিল, রংপুর, রাজশাহী, ময়মনসিংহ, ঢাকা, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের অনেক জায়গায় এবং খুলনা বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেইসঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারি থেকে ভারি বর্ষণ হতে পারে।

আবহাওয়া অফিস সূত্রে জানা গেছে, মৌসুমি বায়ুর অক্ষ রাজস্থান, পাঞ্জাব, হরিয়ানা, উত্তর প্রদেশ, বিহার, পশ্চিম বঙ্গ ও বাংলাদেশের মধ্যাঞ্চল হয়ে আসাম পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। এর একটি বর্ধিতাংশ উত্তরপশ্চিম বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত। মৌসুমি বায়ু বাংলাদেশের উপর মোটামুটি সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরের অন্যত্র মাঝারি অবস্থায় রয়েছে।

এ অবস্থায় শনিবার (৩ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যা পর্যন্ত রংপুর, রাজশাহী, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের অধিকাংশ জায়গায় এবং ঢাকা, খুলনা, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের অনেক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেইসঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারি থেকে ভারি বর্ষণ হতে পারে।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2020  E-Kantha24
Technical Helped by Titans It Solution