শুক্রবার, ০১ Jul ২০২২, ০৯:৪৭ পূর্বাহ্ন

বিসিএস প্রিলিমিনারি টেস্ট পরীক্ষায় কড়া তল্লাশির মধ্য দিয়ে কেন্দ্রে প্রবেশ

ঢাকা কলেজ প্রতিবেদক ॥ ৪৪তম বিসিএস পরীক্ষা-২০২১ এর প্রিলিমিনারি টেস্টে অংশ নিতে যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি মেনে এবং কয়েক স্তরের কড়া তল্লাশির মধ্য দিয়ে কেন্দ্রে প্রবেশ করছেন পরীক্ষার্থীরা। শুক্রবার (২৭ মে) সকাল সাড়ে ৮টায় পরীক্ষার্থীদের কেন্দ্রে প্রবেশ করানোর কার্যক্রম শুরু হয়। এটি চলবে সকাল ৯টা ২৫ মিনিট পর্যন্ত।

এরপর সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত ঢাকা, রাজশাহী, চট্টগ্রাম, খুলনা, বরিশাল, সিলেট, রংপুর ও ময়মনসিংহ কেন্দ্রে ২০০ নম্বরের এই পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে।

সরেজমিনে ঢাকা কেন্দ্রের ধানমন্ডি অঞ্চলের ঢাকা কলেজ, গভর্নমেন্ট ল্যাবরেটরি হাই স্কুল, ঢাকা সিটি কলেজ ও আজিমপুর অঞ্চলের ইডেন মহিলা কলেজ, গভ. কলেজ অব অ্যাপ্লাইড হিউম্যান সায়েন্স ঘুরে দেখা যায়, মূল ফটকের সামনে পরীক্ষার্থীদের দীর্ঘ লাইন। ভেতরে প্রবেশ করার জন্য পুরুষ ও নারী আলাদা দুটি সারিতে চলছে তল্লাশি কার্যক্রম। সবার মুখে মাস্ক রয়েছে কি না তা নিশ্চিত করার পরই ভেতরে প্রবেশ করতে দেওয়া হচ্ছে।

আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে এবং যেকোনো ধরনের অনভিপ্রেত ঘটনা এড়াতে প্রতিটি কেন্দ্রের সামনে ও ভেতরে পর্যাপ্ত সংখ্যক পুলিশ সদস্যের উপস্থিতিও দেখা গেছে।

বিশৃঙ্খলা এড়াতে গেটগুলোতে প্রতিষ্ঠানের সিনিয়র শিক্ষক, অধ্যাপক, সহযোগী অধ্যাপক, সহকারী অধ্যাপক, প্রভাষকসহ বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তাদেরও দায়িত্ব পালন করতে দেখা যায়।

ঢাকা কলেজ কেন্দ্রে দায়িত্বরত কর্মকর্তা সহযোগী অধ্যাপক মোহাম্মদ আনোয়ার মাহমুদ বলেন, সুষ্ঠু ও সুন্দর পরিবেশে পরীক্ষা নিতে বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশনের নির্দেশনা মানা হচ্ছে। সে অনুযায়ী পরীক্ষা কেন্দ্রে বই-পুস্তক, সকল প্রকার ঘড়ি, মোবাইল ফোন, ক্যালকুলেটর, সব ধরনের ইলেকট্রনিক ডিভাইস, ব্যাংক কার্ড বা ক্রেডিট কার্ড সদৃশ কোন ডিভাইস, গহনা ও ব্যাগ আনা সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ। এসব নিষিদ্ধ সামগ্রীসহ কোন প্রার্থীকে পরীক্ষা হলে প্রবেশ করতে দেওয়া হচ্ছে না।

তিনি আরও বলেন, স্বাস্থ্যবিধি মেনে পরীক্ষা নেওয়ার জন্য যেসব ব্যবস্থা প্রয়োজন সবগুলোই করা হয়েছে। কলেজের মূল প্রশাসনিক ভবন, আইসিটি ভবন, উদ্ভিদবিদ্যা ভবন ও লে. শেখ জামাল একাডেমিক ভবনে পরীক্ষার্থীদের বসার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

পিএসসি সূত্রে জানা গেছে, সকাল ১০টায় প্রার্থীদের মধ্যে উত্তরপত্র বিতরণ করা হবে। উত্তরপত্রের ৪টি সেট থাকবে। পরীক্ষার্থীরা উত্তরপত্রে নিজ জেলা ও রেজিস্ট্রেশন নম্বর লিখবেন এবং রেজিস্ট্রেশন নম্বরের সংশ্লিষ্ট বৃত্তগুলো কালো কালির বল পয়েন্ট কলম দিয়ে পূরণ করবেন। প্রার্থীরা হাজিরা তালিকায় স্বাক্ষর করবেন। এ সময় প্রবেশপত্র টেবিলের ওপর খুলে রাখতে হবে। প্রবেশপত্রের ছবি এবং স্বাক্ষরের সাথে হাজিরা তালিকার ছবি ও স্বাক্ষর মিলিয়ে দেখা হবে, গরমিল পাওয়া গেলে বহিষ্কারসহ যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এছাড়াও উত্তরপত্রের অনুরূপ প্রশ্নপত্রেরও ৪টি সেট থাকবে বলে জানানো হয়েছে। পরীক্ষার্থী যে সেট নম্বরের উত্তরপত্র পাবেন তাকে সে সেট নম্বরের প্রশ্নপত্র দেওয়া হবে | উত্তরপত্রের সেট নম্বর এবং প্রশ্নপত্রের সেট নম্বর এক এবং অভিন্ন হতে হবে। বিষয়টি নিশ্চিত হয়ে প্রার্থীদের উত্তর লেখা শুরু করার নির্দেশনাও দেওয়া হয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2020  E-Kantha24
Technical Helped by Titans It Solution