শনিবার, ২৮ মে ২০২২, ১১:৪৯ অপরাহ্ন

বিপুল সয়াবিন তেল মজুত, দুই প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ বিপুল সয়াবিন তেল মজুত করে রাখার অভিযোগে জাতীয় ভোক্তা অধিকার ও সংরক্ষণ অধিদপ্তর অভিযান চালিয়ে গাজীপুরের বোর্ড বাজার এলাকায় দুই প্রতিষ্ঠানকে তিন লাখ টাকা জরিমানা করেছে। এই দুই প্রতিষ্ঠান পুরাতন দামের সাত হাজার ১৫৮ লিটার সয়াবিন তেল মজুত করে রেখেছিল।

মঙ্গলবার দুপুরে এ অভিযান পরিচালনা করেন সহকারী পরিচালক মো. আব্দুল জব্বার মন্ডল এবং মো. মাগফুর রহমান।

মো. আব্দুল জব্বার মন্ডল বলেন, ‘বাণিজ্যমন্ত্রীর নির্দেশনায় এবং জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালকের সার্বিক তত্ত্বাবধানে গাজীপুর বোর্ড বাজারের মেসার্স মনির জেনারেল স্টোর থেকে পুরাতন দামের এক লিটার, দুই লিটার ও পাঁচ লিটারের মোট দুই হাজার ৫৮ লিটারের বোতলজাত সয়াবিন তেল উদ্ধার করা হয়। আর তা উপস্থিত আগ্রহী ক্রেতাদের মাঝে আগের দরে (এক লিটার ১৬০ টাকা, দুই লিটার ৩১৮ টাকা এবং পাঁচ লিটার ৭৬০ টাকা) বিক্রি করা হয়।’

আব্দুল জব্বার মন্ডল জানান, যথাযথভাবে বোতলজাত সয়াবিন তেল বিক্রি বা সরবরাহ না করে অবৈধভাবে মজুদ করা এবং নির্ধারিত মূল্য অপেক্ষা অধিক মূল্যে বোতলজাত সয়াবিন তেল বিক্রি করার অপরাধে মেসার্স মুনির জেনারেল স্টোরকে দুই লাখ টাকা জরিমানা করা হয়।

এছাড়া একই এলাকার মেসার্স আর পি ট্রেডার্সকে এক লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। এই প্রতিষ্ঠান মালিকের বিরুদ্ধে আগের দরের ২৫ ড্রাম প্রতি ড্রামে ২০৪ লিটার হিসেবে পাঁচ হাজার ১০০ লিটার খোলা সয়াবিন ও পাম তেল যথাযথভাবে বিক্রি না করে অবৈধভাবে মজুদ করা, মূল্য তালিকা যথাযথভাবে প্রদর্শন না করা এবং সরকার কর্তৃক নির্ধারিত দামের চেয়ে বেশি দামে খোলা সয়াবিন তেল বিক্রি করার অপরাধের প্রমাণ পাওয়া গেছে। উদ্ধার করা তেল উপস্থিত ক্রেতাদের কাছে আগের দরে (১৪৩ টাকা প্রতি লিটার) বিক্রি করা হয়।

দুই প্রতিষ্ঠানকে সর্বমোট তিন লাখ টাকা জরিমানা করা হয় এবং সাত হাজার ১৫৮ লিটার ভোজ্যতেল উপস্থিত আগ্রহী ক্রেতাদের মাঝে পূর্বের দরে বিক্রি করা হয়। জনস্বার্থে এ ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে জানান কর্মকর্তারা।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2020  E-Kantha24
Technical Helped by Titans It Solution