বুধবার, ১৯ মে ২০২১, ০১:৪৮ পূর্বাহ্ন

বাঘায় গণধর্ষণের অভিযোগে তিনজনের বিরুদ্ধে মামলা, গ্রেফতার ১

বাঘা (রাজশাহী) প্রতিনিধি:: রাজশাহীর বাঘায় তিন জনের বিরুদ্ধে এক গৃহবধুকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। গৃহবধুর স্বামী বাইরে থাকার সুবাদে ওই ৩জন ঘরের তালা ভেঙ্গে ভেতরে প্রবেশ করে। পরে তারা প্রাণনাশের ভয় দেখিয়ে একের পর এক ধর্ষণ করে।

সোমবার (৩ মে) রাতে উপজেলার কলিগ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় অভিযুক্ত ৩জনের বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলা দায়ের করা হয়েছে। ধর্ষিতা গৃহবধু বাদি হয়ে এই মামলাটি দায়ের করেছেন। এ মামলায় সুরুজ আলী মালিথাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সে কলিগ্রামের রুবান মালিথার ছেলে।

মামলার অভিযোগে জানা যায়, সোমবার রাতে ঝড়ো হাওয়ার সাথে বৃষ্টি হচ্ছিল। এসময় রাত আনুমানিক ১২টার দিকে বাড়ির প্রবেশ গেটের টিনের দরজা ভেঙ্গে ভেতরে প্রবেশ করে, একই গ্রামের রুবান মালিথার ছেলে সুরুজ আলী(৩২), এলাহি বক্সের ছেলে ঝন্টু আলী (৩৩) সহ গুলুমালের ছেলে রুজদার আলী (৩৫)। পরে তারা পাশের রুমে লাগানো তালা ভেঙ্গে শয়ন কক্ষে প্রবেশ করে। সেখানে চিৎকার না করার জন্য, গৃহবধুর গলায় দেশীয় অস্ত্র ধরে প্রাণনাশের ভয়ভীতি দেখায় এবং পাশের রুমে নিয়ে একের পর এক ধর্ষন করে। কাজের সুবাদে নিজ এলাকার বাইরে ছিল গৃহবধুর স্বামী। ২ সন্তানকে নিয়ে বাড়িতে ছিলেন গৃহবধু।

তিনি জানান, ঘটনার সময় তার সন্তানকেও মেরে ফেলার হুমকি দিয়ে পাশের কক্ষে নিয়ে গিয়ে ইচ্ছার বিরুদ্ধে ধর্ষন করে। এসময় কেউ ছেলে পাহারা দিচ্ছিলো, কেউ আমার গলায় ছোরা ধরে ছিল। এজন্য তারা চিৎকার করার কোন সুযোগই আমাকে দেয়নি। শেষে বিষয়টি কাউকে না জানানোর জন্য হুমকি দিয়ে চলে যায় তারা। তবে একই গ্রামের লোক হিসেবে তাদের চিনতে পেরেছি।

স্থানীয় কাউন্সিলর সাইফুল ইসলামসহ অনেকেই জানান, কয়েক বছর আগেও তাদের বিরুদ্ধে এই গ্রামের এক নারিকে ধর্ষনের অভিযোগে মামলা হয়েছে। এছাড়াও তারা মাদক ব্যবসার সাথে জড়িত। আর কালো টাকার গরমে নিজেকে হিরো মনে করে চলেন।

বাঘা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নজরুল ইসলাম জানান, গন ধর্ষণের অভিযোগ মামলা রেকর্ড করে প্রধান আসামী সুরুজ আলীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। গৃহবধুর শারিরিক পরীক্ষার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওসিসিতে পাঠানো হয়েছে। মামলার অন্য আসামীদের গ্রেফতার অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলে জানান ওসি।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2020  E-Kantha24
Technical Helped by Titans It Solution