বৃহস্পতিবার, ০৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৩:২৮ অপরাহ্ন

ফরিদপুর-২ উপনির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী জামাল

মজিবুর রহমান, সালথা (ফরিদপুর) প্রতিনিধিঃ ফরিদপুর-২ আসনের উপ-নির্বাচনে (স্বতন্ত্র) এমপি প্রার্থী এ্যাডঃ জামাল হোসেন মিয়া হাজার হাজার নেতাকর্মী সাথে নিয়ে মনোনয়ন পত্র দাখিল করেছেন।
আজ সোমবার (১০ অক্টোবর) দুপুরে সালথা উপজেলা নির্বাচন অফিসে উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা মোঃ তেলায়েত হোসেনের কার্যালয়ে মনোনয়নপত্র জমা দেন তিনি।
মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার সময় উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ আনোয়ার হোসেন মিয়া, রেজাউর রহমান চয়ন মিয়া, সাবেক উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ওয়াহিদুজ্জামান ওহিদ, বল্লভদী ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম, উপজেলা পরিষদ এর সাবেক চেয়ারম্যান লেবু মোল্লা, রামকান্তপুর ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ ইশারত হোসেন, মোঃ আশরাফ আলীলিঠু সাবেক চেয়ারম্যান রামকান্তপুর ইউনিয়ন খোরশেদ খাঁন প্রমুখ।
মনোনয়নপত্র দাখিল শেষে এ্যাডঃ জামাল হোসেন মিয়া সাংবাদিকদের জানান, আগামী ৫ নভেম্বর ফরিদপুর-২ (সালথা- নগরকান্দা, কৃষ্ণপুর) আসনের উপনির্বাচন। এই নির্বাচন অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ নির্বাচন।
বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী হিসেবে আমি মনোনয়ন চেয়েছিলাম আওয়ামী লীগ থেকে আমাকে মনোনয়ন দেয়া হয়নি। জনগণ (সালথা-নগরকান্দা, কৃষ্ণপুর) আসনের লক্ষ লক্ষ জনগণের দাবীর মুখে, জনগণের ইচ্ছায় আজকে আমি স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র দাখিল করেছি। আমি বিশ্বাস করি আগামী (৫ নভেম্বর) নির্বাচনে বিপুল ভোটে প্রিয় জনগণ আমাকে নির্বাচিত করবে। তিনি আরও বলেন, এখানকার জনগণ আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে না, নৌকার বিরুদ্ধে না, এখানকার জনগণ শুধুমাত্র একজন ব্যক্তির বিরুদ্ধে সে হলো শাহদাব আকবর লাবু চৌধুরী।
এখানকার জনগণ লাবু চৌধুরীর বিরুদ্ধে বিদ্রোহী ও জিহাদ, যুদ্ধ ঘোষণা করছে। আর এ যুদ্ধ শুধু একমাত্র ভোটের যুদ্ধ, আগামী ৫ তারিখে বিপুল ভোটের মাধ্যমে জয়লাভ করবো ইনশাআল্লাহ। আমাদের যে প্রতীক হবে, জনগণের যে প্রতীক হবে সেই প্রতীকে ভোট দিয়ে বিপুল ভোটের মাধ্যমে আমাকে নির্বাচিত করে মহান সংসদে পাঠাবে বলে আমি বিশ্বাস করিইনশাআল্লাহ। তিনি আরো বলেন, প্রায়ত সৈয়দা সাজেদা চৌধুরী সর্বজন শ্রদ্ধেয় ব্যক্তি তার অসম্পূর্ণ কাজকে সম্পন্ন করাই আমার লক্ষ। বিগত দুই বছরেরর বেশী সময় সাজেদা চৌধুরীর অসুস্থতার সুযোগ নিয়ে তার ছোট ছেলে নৌকার পতিকের প্রার্থী লাবু চৌধুরী এদেশের সাধারন জনগনের উপর চরম অত্যাচার করেছে। মিথ্যা মামলা দিয়ে, জেল খাটিয়েছে। এখন সময় এসেছে জনগন সুযোগ পেয়েছে এই অত্যাচারীর হাত থেকে মুক্তি পেতে চায় জনগন। আর আমি আমার দেশের জনগনের পাশে দাড়িয়েছি শুধু এই অত্যাচারীর হাত থেকে বাঁচানোর জন্য।
আমি এদেশের সন্তান এদেশের মানুষের প্রতি আমার মায়া আছে। কোন ভিনদেশী লোকের এদেশের মানুষের প্রতি মায়া থাকার কথা নয়। তাই আগামী ৫ নভেম্বর নির্বাচনে আমার যে প্রতিক হবে সেই প্রতিকে ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করবেন আশা করি।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2020  E-Kantha24
Technical Helped by Titans It Solution