বুধবার, ১৯ জানুয়ারী ২০২২, ১১:৩৫ পূর্বাহ্ন

এবার মিরপুর টেস্টে শক্তি নিয়ে নামবে ৪ ডিসেম্বর বাংলাদেশ

মুজিবুর রহমান বাবু, ই-কণ্ঠ২৪ ডটকম : প্রথম টেস্ট চট্টগ্রামে শেষ। দ্বিতীয় টেস্ট মিরপুরে শুরু হবে শনিবার ৪ ডিসেম্বর। প্রথম টেস্টে পাকিস্তানের কাছে ৮ উইকেটে হেরেছে বাংলাদেশ দল। দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজে ১-০ ব্যবধানে পিছিয়ে পড়েছে বাংলাদেশ। এবার শনিবার ৪ ডিসেম্বর থেকে মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে দ্বিতীয় টেস্টে খেলতে নামার পালা বাংলাদেশের।

এই টেস্টে বাংলাদেশ শক্তি নিয়েই মাঠে নামবে ক্রিকেট দল । সাকিব আল হাসান যে ইনজুরি মুক্ত হয়ে দলে ফিরেছেন। এক সাকিব আল হাসান না থাকলে মহা ভাবনায় পড়তে হয় বাংলাদেশ দলকে। একজন বোলার ও একজন ব্যাটার আলাদা নিয়ে খেলতে হয়। আর সাকিব থাকলে একের ভেতর দুই মিলে যায়। একজন বোলার অথবা একজন ব্যাটার বাড়তি খেলানো যায়। শুধু সাকিবই নয়, ইনজুরিমুক্ত হয়ে দলে ফিরেছেন পেসার তাসকিন আহমেদও। তাতে করে পেস আক্রমনের শক্তিও বেড়েছে।

মিরপুর স্টেডিয়ামে স্বাভাবিকভাবেই স্পিনাররাই বেশি সুবিধা পান। বল ঘুরে। লো হয়ে আসে। তাতে ব্যাটারদের ভুগতে হয়। আর এখানেই সাকিবকে অনেক বেশি দরকার। তার মতো একজন বিশ্বমানের স্পিনার দলে থাকলে প্রতিপক্ষও আতঙ্কে থাকে। দ্বিতীয় টেস্টে আমুল পরিবর্তন হওয়ার আভাসই মিলেছে। অধিনায়ক মুমিনুল হকই সেই আভাস দিয়েছেন। দলের একাদশে অনেক পরিবর্তন ও একাদশ শক্তিশালী হওয়ার আভাস দিয়েছেন। দ্বিতীয় টেস্টের জন্য যখন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) দল দিয়েছে, তাতেও সেই আভাস আছে।

প্রথম টেস্টের দুই ওপেনার সাদমান ইসলাম ও সাইফ হাসান ব্যর্থ হয়েছেন। ওয়ানডাউনে খেলা নাজমুল হোসেন শান্তও ব্যর্থতায় ডুবে ছিলেন। দ্বিতীয় টেস্টে সাইফের একাদশের বাইরে থাকা নিশ্চিত হয়ে গেছে। টাইফয়েডে দল থেকে ছিটকে পড়েছেন সাইফ। তাতে করে ওপেনিংয়ে মাহমুদুল হাসান জয়ের এবার অভিষেক হয়ে যেতে পারে।

অভিষেক হতে পারে প্রথমবার টেস্ট দলে সুযোগ পাওয়া নাঈম শেখেরও। মুমিনুল হক, মুশফিকুর রহিম, এরপর সাকিব আল হাসান, লিটন কুমার দাস, মেহেদি হাসান মিরাজ থাকবেন। স্প্যাশালিস্ট স্পিনার হিসেবে থাকবেন তাইজুল ইসলাম। দুইজন পেসার খেললে তাসকিন আহমেদের সঙ্গে আবু জায়েদ রাহী অথবা এবাদত হোসেনকে দেখা যেতে পারে।

এমনও হতে পারে তাসকিন নাও খেলতে পারেন। আর যদি উইকেট দেখে মনে হয়, পুরোদমে স্পিন নির্ভর; তাহলে নাঈম হাসানেরও সুযোগ হয়ে যেতে পারে। তাতে করে এক পেসার নিয়ে খেলার সম্ভাবনাই বেশি। তাসকিন আহমেদকে নেওয়া হয়েছে ঠিক। তবে যতদুর জানা গেছে, আসন্ন নিউজিল্যান্ড সফরের জন্যই তাকে দলে রাখা হয়েছে। যেন দলের সাথে থেকে আঙ্গুলের চোট থেকে মুক্ত হতে পারেন।

নিউজিল্যান্ডে যাওয়ার আগে যেন জৈব বলয়ের মধ্যে থাকেন। অনুশীলনটাও হয়। পাকিস্তানের বিপক্ষে দ্বিতীয় টেস্ট শেষ হতেই যে নিউজিল্যান্ডের উদ্দেশ্যে উড়াল দেবে বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটাররা। ব্যাটিংয়ে আট নম্বর পর্যন্ত ব্যাটার থাকবেন। এরপর তিনটি পজিশনে পুরোদস্তুর বোলাররাই থাকবেন। প্রথম টেস্টে যে ভঙ্গুর দল দেখা গেছে, তার পরিবর্তন যে হবে, তা তো সাকিব আল হাসান ও তাসকিনের সঙ্গে নাঈম শেখের অন্তর্ভুক্তিতেই বোঝা যাচ্ছে। বাংলাদেশ অনেক শক্তি নিয়ে নামবে। এখন দেখার বিষয় মিরপুর টেস্টে ভালো কিছু করার আশা

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2020  E-Kantha24
Technical Helped by Titans It Solution