শুক্রবার, ০৭ মে ২০২১, ১০:১৫ অপরাহ্ন

আরমানিটোলায় আগুন: নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৪

স্টাফ রিপোর্টার:: রাজধানী পুরান ঢাকার আরমানিটোলার হাজী মুসা ম্যানসনের চিলেকোঠা থেকে আরও দু’জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এতে আগুন লাগার ঘটনায় নিহত বেড়ে দাঁড়াল চার জনে। নতুন করে উদ্ধার হওয়া দুটি মরদেহের মধ্যে একটি ভবনের নিরাপত্তাকর্মী ওলিউল্লাহ ব্যাপারির। আরেকজনের পরিচয় শনাক্ত হয়নি।

বৃহস্পতিবার (২২ এপ্রিল) দিবাগত রাত ৩টা ১৮ মিনিটে আরমানিয়ান স্ট্রিটের হাজী মুসা ম্যানসনে লাগা আগুন থেকে এখন পর্যন্ত চার জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

এদিকে ফায়ার সার্ভিসের ১৯টি ইউনিটের চেষ্টায় হাজী মুসা ম্যানসনে লাগা আগুন শুক্রবার (২৩ এপ্রিল) সকাল সাড়ে ৬টার দিকে নিয়ন্ত্রণে আসে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের উপ-পরিচলাক (ঢাকা মেট্রো) দেবাশীষ বর্ধন বলেন, আমরা নিলুফা নামের এক নারীকে ভবন থেকে উদ্ধার করেছি। তার প্রচণ্ড শ্বাসকষ্ট হচ্ছিল। তাকে অচেতন অবস্থায় আমরা ঢামেক হাসপাতালে পাঠাই।

অন্যদিকে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স অধিদফতরের পরিচালক (অপারেশন ও মেইনটেন্যান্স) লেফটেন্যান্ট কর্নেল জিল্লুর রহমান আগুন লাগার ঘটনায় দুইজন নিহত হওয়ার কথা জানিয়েছিলেন। নিহতরা হলেন- মার্কেটের গার্ড রাসেল ও চতুর্থ তলার বাসিন্দা ইডেনের তৃতীয় বর্ষের ছাত্রী সুমাইয়া।

তিনি বলেন, এটি অপরিকল্পিত কেমিক্যাল মার্কেট। এই ভবনে আমরা কোনো ধরনের নিরাপত্তা ব্যবস্থা দেখতে পাইনি। ঘটনা তদন্তে চার সদস্যে কমিটি গঠন করা হয়েছে। তদন্ত কমিটি ১০-১৫ দিনের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দেবে। এ ঘটনায় আমাদের তিন জন কর্মী আহত হয়েছে। ওই ভবনের দোতলা থেকে পাঁচতলা পর্যন্ত লোকজন বসবাস করে। আগুন লাগার পর ভবনের ছাদে কিছু লোক আটকা পড়ে।

ফায়ার সার্ভিস সদর দফতরের ডিউটি অফিসার মাহফুজ রিবেন বলেন, বাবুবাজার ব্রিজ সংলগ্ন আরমানিটোলা খেলার মাঠের পাশে একটি কেমিক্যাল গোডাউনে আগুনের খবর পাই রাত ৩টা ১৮ মিনিটে।

প্রথমে ছয়টি ও পরে ভয়াবহতা বেড়ে গেলে আরও চারটিসহ মোট ১০টি ইউনিট পাঠানো হয়। পরে আরও বাড়িয়ে ১৯টি করা হয়। তারা ভবনের চারপাশে অবস্থান নিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করে। এছাড়াও বাড়ির ছাদে আটকাপড়া লোকজনকে উদ্ধারে ল্যাডার ইউনিট যুক্ত করা হয়।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2020  E-Kantha24
Technical Helped by Titans It Solution