সোমবার, ২৮ নভেম্বর ২০২২, ০৪:৫০ অপরাহ্ন

আজ মাঠে নামছে রোনালদো, নেইমার ও সুয়ারেজরা

স্পোর্টস রিপোর্টার, ই-কণ্ঠ অনলাইন ডেস্ক:: কাতার বিশ্বকাপে এখন পর্যন্ত সব থেকে আলোচিত ম্যাচগুলো আজ। আজ মাঠে গড়াবে চার-চারটি ম্যাচ। ভিন্ন ভিন্ন ম্যাচে প্রথমবারের মতো কাতারের মাঠে নামবে ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো, নেইমার জুনিয়র, লুইজ সুয়ারেজরা। চলুন জেনে নেই আজ মাঠে নেমেছে কোন কোন দল-

সুইজারল্যান্ড-ক্যামেরুন :

ইউরো চ্যাম্পিয়ন ইতালিকে পেছনে ফেলে বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে কাতার বিশ্বকাপে নাম লিখিয়েছে সুইজারল্যান্ড। প্রথম ম্যাচে তাদের প্রতিপক্ষ আফ্রিকান নেশনস কাপে তৃতীয় হওয়া ক্যামেরুন। বিশ্বকাপ তো বটেই, আন্তর্জাতিক ফুটবলেও প্রথমবারের মতো মুখোমুখি হতে চলেছে দু’দল। আল ওয়াকরার আল জানোব স্টেডিয়ামে মুখোমুখি হবে এই দুই দল। খেলা শুরু হবে বাংলাদেশ সময় বিকেল ৪টায়।

১২টি বিশ্বকাপ খেলা সুইজারল্যান্ড আর আটটি বিশ্বকাপে অংশ নেয়া ক্যামেরুনের সর্বোচ্চ সাফল্য কোয়ার্টার ফাইনাল। ১৯৩৪, ১৯৩৮ ও ১৯৫৪ আসরে সেরা আটে খেলেছে সুইসরা। ক্যামেরুন কোয়ার্টার-ফাইনালে খেলেছে ১৯৯০-এর বিশ্বকাপে। তবে দুই দশক ধরে বিশ্বকাপে জয়ের মুখ দেখেনি ক্যামেরুন, সবশেষ জিতেছিল ২০০২ বিশ্বকাপে। ২০১০ ও ২০১৪ সালের আসরে অংশ নিলেও সবগুলো ম্যাচে হারে দলটি।

উরুগুয়ে-দক্ষিণ কোরিয়া :

আজ কাতারের রাজধানী দোহার এডুকেশন সিটি স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা ৭টায় এডিনসন কাভানি-লুইস সুয়ারেজদের বিপক্ষে মাঠে নামবে সন হিউং মিনের দক্ষিণ কোরিয়া। চোট কাঁটিয়ে ফিরেছেন সন হিউং মিন, কাতার বিশ্বকাপে নিজ দলের উদ্বোধনী ম্যাচ থেকেই একাদশে থাকবেন তিনি।

বিশ্বকাপের সবশেষ তিন আসরেই নকআউট পর্বে উঠেছে উরুগুয়ে। অন্যদিকে, গত দু’আসরে গ্রুপ পর্ব পেরোতে পারেনি দক্ষিণ কোরিয়া। তাছাড়া এখন পর্যন্ত আটবার মুখোমুখি হয়েছে উরুগুয়ে ও দক্ষিণ কোরিয়া। এর মধ্যে ১৯৯০ ও ২০১০ সালে বিশ্বকাপের দুই ম্যাচসহ ছয়টি জিতেছে উরুগুয়ে। ড্র হয়েছে এক ম্যাচ। ২০১৮ সালে দু’দলের সবশেষ দেখায় উরুগুয়ের বিপক্ষে নিজেদের একমাত্র জয় পেয়েছে দক্ষিণ কোরিয়া।

পর্তুগাল-ঘানা :

কাতারে চলছে বিশ্বকাপ ফুটবলের ২২তম মহাযজ্ঞ। তবে পর্তুগাল কাতারে এসেছে নিজেদের মাত্র অষ্টম বিশ্বকাপ খেলতে। তবে গত ৫ টুর্নামেন্টে ধারাবাহিকভাবেই বিশ্বকাপ খেলছে পর্তুগাল। যার চারটিতেই দলের সঙ্গী ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। আজ কাতার বিশ্বকাপে রাত ১০টায় নিজেদের উদ্বোধনী ম্যাচে মাঠে নামবে পর্তুগাল।

২০১৬ সালের ইউরো ও ২০১৯ সালে নেশন্স লিগের শিরোপাজয়ী পর্তুগাল এবার বিশ্বজয় করতে চায়। তাছাড়া ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোরও শেষ বিশ্বকাপ এটা। ফলে তার জন্য হলেও শিরোপা জিততে চায় সতীর্থরা। রোনালদোই দলের সেরা তারকা হলেও এবার কেবল তার ওপর নির্ভরশীল নয় দল। রয়েছে একঝাঁক নতুন তারকা। ব্রুনো ফার্নান্দেজ,,আন্দ্রে সিলভা, রুবেন নেভেস, বার্নার্ডো সিলভার মতো ফুটবলাররা।

এদিকে ২০১৮ রাশিয়া বিশ্বকাপে কোয়ালিফাই করতে পারেনি ঘানা। এবার তারা বিশ্বকাপে ভালো করতে মরিয়া। সাম্প্রতিক তাদের পারফর্মেন্সও বেশ ভালো। আট ম্যাচের মধ্যে ৭ ম্যাচ জিতেই বিশ্বকাপ খেলতে নামছে ঘানা। তাই পর্তুগালের বিপক্ষে বেশ আত্মবিশ্বাসীই থাকবে ঘানা। ২০১৪ বিশ্বকাপে শেষবার একে অপরের মুখোমুখি হয়েছিল পর্তুগাল-ঘানা। সেবার জোড়া গোল করে দলকে জেতান ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। এবার তাই রোনালদোকে থামাতে আলাদা ছক করবে ঘানা।

ব্রাজিল-সার্বিয়া :

দিনের শেষ ম্যাচে মাঠে নামছে পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ব্রাজিল। কাতার বিশ্বকাপে নিজেদের উদ্বোধনী ম্যাচে মাঠে নামবে সেলেসাওরা। লুসাইল স্টেডিয়ামে মুখোমুখি হবে ব্রাজিল ও সার্বিয়া। ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় রাত ১টায়। এই ম্যাচ দিয়েই কাতার বিশ্বকাপে ‘হেক্সা’ জয়ের অভিযাত্রা শুরু করবে তিতের দল।

সেরা ছন্দে আছে ব্রাজিলের আক্রমণভাগ। যে ৯ ফরোয়ার্ড বিশ্বকাপ স্কোয়াডে আছে, ক্লাব ফুটবলে এই বছর মোট ৭২ গোল করেছে তারা। যা বিশ্বকাপে অংশ নেয়া বাকি দেশগুলোর খেলোয়াড়দের সাথে তুলনায় সর্বোচ্চ। এই সময়ে পেদ্রো করেছেন ২১ গোল। ১৫ গোল নিয়ে দু’য়ে নেইমার, ১০ গোল নিয়ে তিনে ভিনিসিয়ুস জুনিয়র ও ৭ গোল নিয়ে চারে রদ্রিগো। ফলে চোখ কপালে উঠতেই পারে সার্বিয়ার।

ইতিহাস, পরিসংখ্যান ও সাম্প্রতিক পারফরম্যান্স বিবেচনায় দু’দলই প্রায় সমান অবস্থানে। সার্বিয়া সর্বশেষ পাঁচ ম্যাচের একটিতে ড্র করলেও ব্রাজিল জিতেছে সব ম্যাচে। র‍্যাঙ্কিংয়ে সার্বিয়া রয়েছে ২১তম অবস্থানে, ব্রাজিল ফিফা র‍্যাঙ্কিং এর শীর্ষে থেকেই বিশ্বকাপে এসেছে। তাছাড়া এর আগে দু’বার মুখোমুখি হয়েছে ব্রাজিল ও সার্বিয়া। দু’বারই জিতেছে ব্রাজিল।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2020  E-Kantha24
Technical Helped by Titans It Solution