সোমবার, ২৯ মে ২০২৩, ১১:৫১ অপরাহ্ন

শ্রদ্ধা জানাতে প্রস্তুত সাভারের জাতীয় স্মৃতিসৌধ

তুহিন আহামেদ, সাভার প্রতিনিধি:: ২৬ মার্চ মহান স্বাধীনতা দিবস। শহীদ মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মান জানাতে পুরোপুরি প্রস্তুত সাভারের জাতীয় স্মৃতিসৌধ। এদিন মহামান্য রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীসহ জাতির গৌরব আর অহংকারের দিনটিতে সৌধ প্রাঙ্গণে নামবে লাখো মানুষের ঢল। শ্রদ্ধা নিবেদন আর যথাযোগ্য মর্যাদায় দিনটি পালন করতে সৌধ এলাকায় প্রশাসনের পক্ষ থেকে নেয়া হয়েছে চার স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা।

গণপূর্ত বিভাগ সুত্রে জানা গেছে, মহান স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে গণপূর্ত বিভাগের কর্মীরা মাসব্যাপী কাজ করে সৌধ প্রাঙ্গণকে সাজিয়ে তুলেছেন নতুন রূপে। নানা রঙের বাহারি ফুলের চাদরে ঢেকে ফেলা হয়েছে স্মৃতিসৌধের সবুজ চত্বর। চত্বরের সিঁড়ি ও নানা স্থাপনায় পড়েছে রং-তুলির আচড়। নিরাপত্তার জন্য ওয়াচ টাওয়ার নির্মাণ, উচ্চ মাত্রার সিসিটিভি ক্যামেরা স্থাপন করা হয়েছে। পুলিশ কন্ট্রোল রুমের মাধ্যমে সার্বক্ষণিক নজরদারিসহ সৌধ এলাকায় থাকবে তিন স্তুরের নিরাপত্তা বলয়।

স্মৃতিসৌধে আগত দর্শনার্থীদের যাতায়াত নির্বিঘ্ন করতে সাভারের ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের আমিনবাজার থেকে জাতীয় স্মৃতিসৌধ পর্যন্ত এবং এর আশপাশের এলাকায় সাদা পোশাকে গোয়েন্দা নজরদারিসহ মোতায়েন থাকবে সহস্রাধিক পুলিশ সদস্য।

মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবসে স্মৃতিসৌধের প্রস্তুতি এবং বিদেশি ভিআইপিদের আগমন উপলক্ষে সকল প্রকার দর্শনার্থীদের স্মৃতিসৌধে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে। ২৬ মার্চ রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী এবং আমন্ত্রিত অতিথিবৃন্দ স্মৃতিসৌধ ত্যাগ করার পর সর্বসাধারণের শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়া হবে।

দিবসটির প্রথম প্রহরেই রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, কুটনৈতিক কোরের ডিন, যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধাসহ সমাজের সর্বস্তরের মানুষজন শহীদ বেদিতে ফুল দিয়ে বীর সন্তানদের প্রতি শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করবেন।

জাতীয় স্মৃতিসৌধের গণপূর্ত বিভাগের উপ-সহকারী প্রকৌশলী মিজানুর রহমান জানান, মহান স্বাধীনতা দিবসে রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, মন্ত্রী পরিষদের সদস্যবৃন্দ ও বিদেশি কূটনীতিকসহ লাখো মানুষ জাতীয় স্মৃতিসৌধে পুষ্পস্তবক অর্পণ করবেন। এজন্য সাভার গণপূর্ত বিভাগের পক্ষ থেকে জাতীয় স্মৃতিসৌধকে দীর্ঘ প্রায় এক মাস ধরে ধুয়ে-মুছে, রং তুলির আচড়ে রং-বেরংয়ের ফুল দিয়ে সাজানো হয়েছে। স্মৃতিসৌধে আগত দর্শনার্থীসহ সকলের নিরাপত্তার জন্য সিসি টিভি ক্যামেরা স্থাপন করা হয়েছে। পুরোপুরি প্রস্তুত করা হয়েছে জাতীয় স্মৃতিসৌধ।

সার্বিক নিরাপত্তার ব্যাপারে ঢাকা জেলা পুলিশ সুপার জানান, ২৬ শে মার্চ স্বাধীনতা দিবসকে ঘিরে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষায় সকল ধরনের ব্যবস্থা সম্পন্ন করা হয়েছ। নিরাপত্তার খাতিরে বহিরাগতদের ভিতরে ঢুকা এখন থেকে ২৬ শে মার্চ পর্যন্ত বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। জাতীয় স্মৃতিসৌধ এলাকায় নেয়া হয়েছে চার স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা।

তিনি জানান, নিরাপত্তা বেষ্টিত এরিয়ায় কারা কারা অবস্থান করছেন সেটা প্রযুক্তির মাধ্যমে চিহ্নিত করার ব্যবস্থা করা হয়েছে। সিভিল পোশাকে একাধিক গোয়েন্দা সংস্থা নিরাপত্তা রক্ষায় কাজ করবেন। ট্রাফিক ব্যবস্থাপনায় রাখা হয়েছে স্পেশাল ব্যবস্থা, যেন ঐদিন ট্রাফিক ব্যবস্থাপনায় কোন প্রকার অসঙ্গতি না থাকে সে ব্যাপারে দেয়া হয়েছে ট্রাফিক বিভাগকে বিশেষ নির্দেশনা।

দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডাঃ এনামুর রহমান এমপি বলেন, ২৬ শে মার্চের সকল আয়োজন ইতিমধ্যে সম্পন্ন হয়েছে। পরি পাটি করে সাজানো হয়েছে পুরো সাভার উপজেলাকে। নিরাপত্তা রক্ষায় আইন শৃঙ্খলা বাহিনী প্রস্তুত রয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2020  E-Kantha24
Technical Helped by Titans It Solution