বৃহস্পতিবার, ২২ এপ্রিল ২০২১, ০৭:৩৮ পূর্বাহ্ন

মেয়েকে কুপিয়ে হত্যা করলো মা

খুলনা প্রতিনিধিঃ খুলনার তেরখাদা উপজেলার আড়কান্দী গ্রামে পাঁচ বছর বয়সী তানিশা আক্তার নামে এক ঘুমন্ত শিশুকে কুপিয়ে হত্যা করেছে সৎ মা। এ ঘটনায় সৎ মা মুক্তা খাতুনকে আটক করেছে পুলিশ। সোমবার (৫ এপ্রিল) রাত ১০টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন তেরখাদা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি তদন্ত) মো. মোশারফ হোসেন। তিনি বলেন, এ ঘটনায় শিশুর মা মুক্তা খাতুনকে আটক করা হয়েছে। পারিবারিক কলহের জের ধরে সৎ মা তানিশাকে হত্যা করেছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তিনি পুলিশের কাছে হত্যাকাণ্ডে জড়িত বলে স্বীকার করেছেন।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, ৭ বছর আগে তেরখাদা উপজেলার আক্কাস শেখের মেয়ে তাসলিমাকে পারিবারিকভাবে বিয়ে করেছিলেন খাজা শেখ। পরে দাম্পত্য কলহের এক পর্যায়ে বিবাহবিচ্ছেদ ঘটে তাদের। এর দেড় বছর আগে মুক্তা খাতুনকে বিয়ে করেন খাজা শেখ। কিন্তু কোনোভাবেই শিশু তানিশা আক্তারকে মেনে নিতে পারছিলেন না সৎ মা মুক্তা খাতুন। বিভিন্ন সময় শিশুটির ওপর নির্যাতন করতেন মুক্তা।

সর্বশেষ সোমবার শিশু তানিশা বাবার বাড়িতে বেড়াতে আসে। এ সময় তানিশার বাবা বাড়িতে ছিলেন না। এ সময় তানিশা তার দাদির কাছে ঘুমায়। কিন্তু সেখান থেকে মুক্তা তাকে উঠিয়ে নিজের কাছে নিয়ে আসেন। রাত ১০টার দিকে ঘুমন্ত তানিশাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাতাড়ি কোপায় মুক্তা। রক্তাক্ত তানিশার চিৎকারে স্থানীয় লোকজন ঘরে গিয়ে তেরখাদা থানায় খবর দেয়। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে মুক্তা খাতুনকে আটক করে।

তেরখাদা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ গোলাম মোস্তফা বলেন, শিশুটির বাবা আনসার ব্যাটালিয়নে চাকরি করেন। প্রথম স্ত্রীর সঙ্গে দেড় বছর আগে বিচ্ছেদ হয় তার। তিন/চার মাস আগে নতুন বিয়ে করেছেন। কিন্তু সৎ মা শিশু তানিশাকে মেনে নিতে পারিনি। এ ঘটনার জের ধরেই ঘুমন্ত শিশু তানিশাকে কুপিয়ে হত্যা করেন।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2020  E-Kantha24
Technical Helped by Titans It Solution