বৃহস্পতিবার, ২২ এপ্রিল ২০২১, ০৮:৫৩ পূর্বাহ্ন

মুন্সিগঞ্জে আর একদিন পরেই নির্বাচন, ১৭টি ভোট কেন্দ্রের ১১টিই ঝুঁকিপূর্ণ

মুন্সিগঞ্জ প্রতিনিধিঃ আর একদিন পরেই অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে মুন্সিগঞ্জের মিরকাদিম পৌরসভা নির্বাচন। ইভিএম পদ্ধতিতে ভোটগ্রহণ হবে ১৭টি কেন্দ্রে। এর মধ্যে ঝুঁকিপূর্ণ ১১টি কেন্দ্র, যা মোট কেন্দ্রের ৬৪ শতাংশ।

নির্বাচনের নিরাপত্তা নিশ্চিত ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় সদস্য মাঠে থাকছেন ৩৭৬ জন পুলিশ। পাশাপাশি তিন প্লাটুন বিজিবি, র‍্যাবের টহল টিম ও ১৫০ জন আনসার সদস্য থাকবেন। ১৯৯৫ সালে প্রাচীন নদীবন্দর মিরকাদিম পৌরসভায় ঘোষণা করা হয়। বর্তমানে ৯টি ওয়ার্ডে গঠিত এ পৌরসভায় ভোটার ৩৭ হাজার ৬৫৬ জন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন নির্বাচন কর্মকর্তা জানান, ভোটারদের মধ্যে নেতিবাচক প্রতিক্রিয়া তৈরি না হয় এজন্য ঝুঁকিপূর্ণ না বলে গুরুত্বপূর্ণ বলা হয়। ভোটার সংখ্যা, কেন্দ্রের ভৌগলিক অবস্থান, প্রার্থীর নিজ এলাকা এবং আগের ভোটের পরিস্থিতি অনুযায়ী গুরুত্বপূর্ণ হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে।

সদর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও সহকারী রিটার্নিং অফিসার মুহাম্মদ বদর-উদ-দোজা ভূঁইয়া জানান, এ নির্বাচনে ৫২ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এরমধ্যে মেয়র পদে চারজন, সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর পদে ১১ জন ও সাধারণ ওয়ার্ড কাউন্সিলর ৩৭ জন। ১৭টি কেন্দ্রের ১০৪ কক্ষে ভোটগ্রহণ হবে। এ পৌরসভায় ৩৭ হাজার ৬৫৬ জন ভোটার আছেন। ইতোমধ্যে ১০৪ জন সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার, ২০৮ জন পোলিং অফিসার নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। ১৪ ফেব্রুয়ারি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে কোনো আইনি বাধাও নেই।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) খন্দকার আশফাকুজ্জামান জানান, এ পৌরসভা নির্বাচনের জন্য ৩৭৬ জন পুলিশ সদস্য মোতায়েন থাকবে। পাশাপাশি প্রাথমিকভাবে তিন প্লাটুন বিজিবি, র‍্যাব, আনসার সদস্যরা দায়িত্ব পালন করবেন। কেন্দ্রগুলোতে সাধারণ ও গুরুত্বপূর্ণ এই দুই ভাগে ভাগ করা হয়েছে। এরমধ্যে ১১টি কেন্দ্র গুরুত্বপূর্ণ ও ছয়টি কেন্দ্র সাধারণ। তবে সব কেন্দ্রে থাকবে ছয়জন পুলিশ সদস্য।

স্থানীয় ভোটাররা জানান, আদালতে জায়গা জটিলতার অভিযোগ এনে দু’জন ভোটার রিট করেছিলেন। ফলে ৯ ফেব্রুয়ারি নির্বাচন স্থগিত করেছিল আদালত। তবে আরেকজন মেয়রপ্রার্থী রিটের বিরুদ্ধে আবেদন জানান। এর পরিপ্রেক্ষিতে ১৪ ফেব্রুয়ারি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে আইনি বাধা সরে যাওয়ার নির্দেশনা আসে।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2020  E-Kantha24
Technical Helped by Titans It Solution