সোমবার, ২৮ নভেম্বর ২০২২, ০৫:৪৪ অপরাহ্ন

ভালুকার গণমানুষের নেতা এম এ ওয়াহেদকে আ’লীগের সভাপতি দেখতে চায় তৃনমূল নেতাকর্মীরা

আবুল বাশার শেখ, ভালুকা (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি:: ভালুকা উপজেলার গণমানুষের নেতা আলহাজ্ব এম এ ওয়াহেদ মানুষের সেবায় নিজেকে নিয়োজিত রাখতে চান। তৃনমূলের নেতাকর্মীদের ভালোবাসায় জাতির জনকের আদর্শকে আকড়ে ধরে থাকতে চান তিনি। আসন্ন আগামী ৩০ নভেম্বরের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে তৃনমূলের নেতাকর্মী আজীবন সংগ্রামী ত্যাগী জননেতা আলহাজ এম এ ওয়াহেদকে সভাপতি হিসাবে দেখতে চায়। সাধারণ জনগণের জন্য ব্যতিক্রম সব কর্মকান্ড করে সারা ময়মনসিংহের আলোকিত রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছেন ভালুকার কৃতি সন্তান, বিশিষ্ট দানবীর, সমাজসেবক, আন্তর্জাতিক ব্যবসায়ী ময়মনসিংহ জেলা আওয়ামীলীগের অন্যতম সদস্য আলহাজ্ব এম এ ওয়াহেদ।

আলহাজ এম এ ওয়াহেদ ময়মনসিংহ জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ধর্ম বিষয়ক উপ কমিটির সদস্য, ভালুকা আঞ্চলিক শাখা জাতীয় শ্রমিকলীগের উপদেষ্টা, বঙ্গবন্ধু পরিষদ ময়মনসিংহ জেলা শাখার উপদেষ্টা হিসাবে নিষ্ঠা ও সততার সাথে দায়িত্ব পালন করেন। স্বৈরাচার এরশাদ বিরোধী ও ১৯৯০ সালে নির্বাচনের পর খালেদা জিয়া বিরোধী বিভিন্ন সময়ে সক্রিয় ভূমিকা পালন করেন ভালুকার গণমানুষের নেতা আলহাজ্ব এম এ ওয়াহেদ ২০০২ সালে। বিএনপি সন্ত্রাসীদের হাতে আহত, দলীয় নেতাকর্মীদের বিভিন্ন ভাবে সহায়তা প্রদান করেন এবং দলীয় নেতাকর্মীদের মামলা মোকদ্দমায় আর্থিক ভাবে সহায়তায় তাদের পাশে দাঁড়ান। সকল সময় তিনি আন্দোলন সংগ্রামে ছিলেন এবং এখনো আছেন।

আলহাজ্ব এম এ ওয়াহেদ এমন একজন মানুষ যিনি রাজনীতি করেন শুধু মানুষের কল্যান করার জন্য, মানুষকে সেবা দিবার জন্য, বিপদে পাশে দাঁড়ানোর জন্য। ব্যক্তি জীবনে তিনি একজন সফল ব্যবসায়ী। রাজনীতি করে টাকা কামানোর কোন প্রয়োজন পড়বেনা তার। বর্তমানে তিনি মন্ত্রী নন, এমপি নন তবুও যেন তিনি ভালুকার মানুষের প্রান। নেই কোন অহংকার, সদা হাস্যোজ্জল, বিনয়ী, একজন সাদা মনের মানুষ আলহাজ্ব এম এ ওয়াহেদ। তার কাছে গেলে কখনো কাউকে খালি হাতে ফিরিয়ে দেন না তিনি। দু-হাত উজার করে দান করছেন অসহায়, দরিদ্রদের। সম্পূর্ন নিজস্য অর্থায়নে উপজেলার বিভিন্ন স্থানে অসংখ্য মসজিদ, মাদরাসা, এতিমখানা নির্মান করেছেন। দরিদ্র রোগীদের চিকিৎসায় লক্ষ লক্ষ টাকা দান করছেন অকাতরে। দরিদ্র পিতার কন্যাকে বিয়ে দিচ্ছেন নিজ খরচে।

ভালুকার আনাচে কানাচে যেখানেই কোন আওয়ামীলীগ নেতা কর্মি অসুস্থ্য হচ্ছে সেখানেই তিনি ছুটে যাচ্ছেন, চিকিৎসার জন্য আর্থিক সহায়তা প্রদান করছেন। ময়মনসিংহ জেলা আওয়ামীলীগের ডুনার বলা হয়ে থাকে আলহাজ্ব এম এ ওয়াহেদকে। মহামারি করোনার সময় উপজেলার প্রত্যেকটি ওয়ার্ডে দরিদ্রদের মাঝে ত্রান পৌছে দিয়েছেন। আসন্ন উপজেলা আওয়ামীলীগের কাউন্সিল ভালুকা উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি প্রার্থী হিসেবে নিজের নাম ঘোষনা করেছেন। তারপরই উল্টে গেছে আগের সব হিসাব নিকাশ। বেশ জুরে শুরেই উচ্চারিত হচ্ছে আলহাজ্ব এম এ ওয়াহেদ এর নাম। তৃনমূলের অধিকাংশ নেতাই আলহাজ্ব এম এ ওয়াহেদকে উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি হিসেবে দেখতে চায় বলে জানিয়েছে আওয়ামীলীগের অনেক নেতা কর্মিগণ।

আলহাজ্ব এম এ ওয়াহেদ বলেন, ভালুকার মানুষের জন্য কিছু করতে চাই, সুযোগ পেলে নিজেকে উজার করে দিবো। তিনি বলেন, ভোগে সুখ নয় ত্যাগেই প্রকৃত সুখ। ভালুকার মানুষের কাছে আমার চাওয়ার কিছু নাই। নেবার জন্য নয় ভালুকার মানুষকে দিতে এসেছি। মানুষের ভালোবাসাই আমার সর্বশ্রেষ্ঠ অর্জন। মানুষের ভালোবাসা নিয়েই যেন বাকিটা জীবন কাটিয়ে দিতে পারি। আর এ জন্য তিনি সকলের দোয়া ও সহযোগীতা কামনা করেন।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2020  E-Kantha24
Technical Helped by Titans It Solution