মঙ্গলবার, ২৬ অক্টোবর ২০২১, ০১:৩৩ পূর্বাহ্ন

বাঘায় পিতার লাঠির আঘাতে ছেলের মৃত্যু!

বাঘা (রাজশাহী) প্রতিনিধি:: সহোদর দুই ভাই শিশির ও শাওন। শিশিরের বয়স ১৮ বছর আর শাওনের বয়স ১৫ বছর। মাঠে ক্ষেতের পাট জাগ দেওয়া নিয়ে দুই ভাইয়ের মধ্যে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে হাতাহাতি শুরু হয়। তা দেখে সেখানে থাকা তাদের পিতা বাবুল ইসলাম বাঁশের লাঠি দিয়ে শিশিরের মাথায় আঘাত করেন। এতে জ্ঞান হারিয়ে মাটিতে লুটে পড়ে শিশির। তাকে উদ্ধার করে বাঘা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগে নেওয়ার পর সেখানকার কর্তব্যরত চিকিৎসক আশংকাজনক অবস্থায় রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়ে দেন। রামেক হাসপাতালে ভর্তি হয়ে সেখানে চিকিৎসাধীন ছিলেন সাত দিন। সেখানে অবস্থার উন্নতি না হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে গত আগষ্ট মাসের ২৬ তারিখে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বুধবার (২৯ সেপ্টেম্বর) ভোর রাতে মারা যায় শিশির। সে উপজেলার বাউসা ইউনিয়নের ফতেপুর বাউসা গ্রামের বাবুল ইসলামের বড় ছেলে। এঘটনায় শিশিরের পিতা বাবুল ইসলামকে বুধবার দুপুরে গ্রেফতার করে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

বাঘা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সাজ্জাদ হোসেন জানান, শিশিরের মা শরিফা বেগম বাদি হয়ে মামলা দায়ের করেছে। এ মামলায় বাবুল ইসলামকে গ্রেফতার করে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। বাউসা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শফিকুর রহমান শফিক জানান, ঢাকার শাহাবাগ থানার মাধ্যমে লাশের ময়না তদন্ত শেষ হলে, এলাকার কবরস্থানে দাফন করা হবে। তবে ঘটনাটি অনাকাঙ্খিত।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2020  E-Kantha24
Technical Helped by Titans It Solution