বৃহস্পতিবার, ২২ এপ্রিল ২০২১, ০৯:২৯ পূর্বাহ্ন

বাঘায় পদ্মার চরে প্রতিপক্ষের হামলায় ৪ জন গুলিবিদ্ধসহ আহত ১০

বাঘা (রাজশাহী) প্রতিনিধি:: রাজশাহীর বাঘায় পদ্মার চরে প্রতিপক্ষের সশস্ত্র হামালায় ৪ জন গুলিবিব্ধসহ অন্তত ১০ জন আহত হয়েছে।

রোববার (২৮ ফেব্রুয়ারি) সকাল ১১টার দিকে উপজেলার চকরাজাপুর ইউনিয়নের চৌমাদিয়া চরে এই ঘটনা ঘটেছে।

গুলি বিদ্ধরা হলেন- আদম আলীর ছেলে আব্দুর রাজ্জাক (৩০), অলি ঢালীর ছেলে লিটন ঢালী (৩৫), সামসুল ইসলামের ছেলে দুলাল দর্জি (৩০), দিলু দর্জির স্ত্রী মরিয়ম বেগম (৩৫) কে বাঘার স্থানীয় হাসপাতাল থেকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। আহত হয়েছে- নুরুল ইসলামের ছেলে ইদ্রিস আলী (৪০), শিকিম আলী দর্জির ছেলে ইয়ার আলী (৪৫), আলেম আলীর ছেলে ইব্রাহীম হোসেন ও মজনু দর্জি সহ অন্তত ১০জন। এদের মধ্যে ইদ্রিস আলী, ইয়ার আলী ও ইব্রাহীম হোসেনকে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

জরুরি বিভাগের চিকিৎসক সোলাইমান আলী জানান, পেটে, বুকে, হাতে, পায়ে ও পাঁজরে গুলিবিদ্ধ ৪ জনের মধ্যে লিটন ঢালী ও আব্দুর রাজ্জাকের অবস্থা আশংকাজনক।

স্থানীয় চেয়ারম্যান আজিজুল আযম ও ইউনিয়ন আ’লীগের নেতা মনোয়ার হোসেন বাবলু দেওয়ান জানান, জমি-জমা বিরোধে ঘটনার ২দিন আাগে মজনুর কলা বাগানে আগুন ধরিয়ে দেয় দিলু ব্যাপারির লোকজন। এনিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে বাক বিতন্ডা হয়। তারই জের ধরে রোববার সকালের দিকে দিলু ব্যাপারির পক্ষের লোকজন আগ্নেয়াস্ত্র ও ধারলো অস্ত্রসহ লাঠিসোটা নিয়ে মজনু পক্ষের লোকজনের উপর হামালা চালায়। এতে কয়েকজন গুলিবিদ্ধ হয় এবং অপর কয়েকজন আহত হয়েছে।

স্থানীয় মোশারফ হোসেন জানান, হামলাকারিদের মধ্যে কয়েকজনের হাতে পিস্তল ছিল। সেই পিস্তলের ছোড়া গুলি ও ধারালো অস্ত্রের আঘাতে তারা আহত হয়েছে। ঘটনার সময় স্থানীয় বিজিবি ক্যাস্পের কোন সহযোগিতা পাওয়া যায়নি। অন্যদিকে খবর পেয়ে সেখানে আসেন কুষ্টিয়া জেলার চিলমারি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সৈয়দ আলী ও তার ইয়ার আলীসহ কয়েকজন। হামলাকারি ইয়ার আলীকেও মারধর করেছে। প্রতিপক্ষের বক্তব্য নেয়ার চেষ্টা করেও পাওয়া যায়নি।

বাঘা থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) নজরুল ইসলাম জানান, ঘটনা জানার সাথে সাথে পুলিশ পাঠিয়েছি। পরে অতিরিক্ত পুলিশ নিয়ে ঘটনাস্থলে যায়।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2020  E-Kantha24
Technical Helped by Titans It Solution