বৃহস্পতিবার, ২২ এপ্রিল ২০২১, ০৮:০০ পূর্বাহ্ন

পদকশূন্য রোমান সানা, রিকার্ভ পুরুষ এককে সেরা কৃষ্ণ সাহা

মুজিবুর রহমান , ই-কণ্ঠ ২৪ ডটকম : বঙ্গবন্ধু ৯ম বাংলাদেশ গেমস টঙ্গীর শহীদ আহসান উল্লাহ্ মাস্টার স্টেডিয়ামে আরচারি প্রতিযোগিতা তীর ধনুকের খেলা। বঙ্গবন্ধু ৯ম বাংলাদেশ গেমস এই লকডাউনের মধ্যেও সারাদেশে বিভিন্ন ইভেন্টের খেলা চলছে। প্রতিদিনই হচ্ছে নতুন নতুন জাতীয় রেকর্ড।
রাম কৃষ্ণ সাহা ৬-৫ (১০-০৯) ব্যবধানে জিতে সেরা হয়েছে। এই ইভেন্টে ব্রোঞ্জ পেয়েছেন সাকিব মোল্লা।
রোমান সানার বঙ্গবন্ধু ৯ম বাংলাদেশ গেমসে হতাশ এই দুঃসময়ের রিকার্ভের দলগত ও মিশ্র দলগত এই ইভেন্টেও সাফল্যের কোন দেখা মেলে নাই ক্যারিয়ারের বাজে সময়। জাতীয় পর্যায়ে ৮ বছরেরও বেশি সময় ধরে খেলছেন তীর-ধনুকের খেলা আরচারি। এই আরচার রোমান সানা শেষ করলেন পদকহীন থেকে! প্রতিবার কিছু না কিছু জিতেছেন। কিন্তু ক্যারিয়ারে এই প্রথম খেলতে গিয়ে সোনা, রুপা, তামা … কিছুই জেতেননি তারকা তীরন্দাজ রোমান সানা। এত বড় টুমেন্টে তার কিছুই পেল না। তার প্রিয় ইভেন্ট রিকার্ভ পুরুষ এককে সেরা হয়েছেন রাম কৃষ্ণ সাহা।
বঙ্গবন্ধু ৯ম বাংলাদেশ গেমসের আরচারির রিকার্ভ পুরুষ এককের শেষ ষোলো থেকে রোমান সানাকে ছিটকে দেওয়া জুয়েল খানও পাননি পদকের দেখা। তামিমুল ইসলামকে হারিয়ে সেরা হয়েছেন রাম কৃষ্ণ সাহা।
আরচারির ওয়ার্ল্ড চ্যাম্পিয়নশিপের ব্যক্তিগত রিকার্ভ ইভেন্টে ব্রোাঞ্জ জিতে বাংলাদেশকে টোকিও অলিম্পিকে খেলার যোগ্যতা অর্জন করে হৈচৈ ফেলে দিয়েছিলেন এই রোমান সানা। এই প্রথম তার নামের পাশে নেই কোন পদক এই বঙ্গবন্ধু ৯ম বাংলাদেশ গেমসে শেষ করলেন পদকশূন্য এবারের এই আসরে। যা তার ক্যারিয়ারে নতুন অভিজ্ঞতা। গত এসএ গেমসে হ্যাটট্রিক সোনা জেতা এই আরচার ব্যর্থতার দায় কিছুটা দিলেন ভাগ্যের উপর।
৪ এপ্রিল রবিবার রিকার্ভ ব্যক্তিগত ইভেন্টে প্রি-কোয়ার্টার ফাইনালে হেরে যান রোমান। ৬ এপ্রিল মঙ্গলবার রিকার্ভ পুরুষ দলগত ও রিকার্ভ মিশ্র দৈ¦ত ইভেন্টেও ব্যর্থ। “এলিমিনেশন ও র‌্যাঙ্কিং রাউন্ডে ভাল করলেও নকআউট পর্বে এসে পারিনি। সত্যি বলতে ভাগ্য পক্ষে ছিল না। এই পর্বে আত্মবিশ্বাসেরও অভাব ছিল।”
“ফুটবল, ক্রিকেট কিংবা আরচারি যেই খেলারই খেলোয়াড় হোক না কেন, সবারই খারাপ সময় যায়। আমারও তেমনই যাচ্ছে। তবে আত্মবিশ্বাস আছে দ্রুত আগের ফর্মে ফিরতে পারব।”
গত বছর বিজয় দিবস টুর্নামেন্টে, গত মাসে কক্সবাজারে অনুষ্ঠিত জাতীয় চ্যাম্পিয়নশিপেও ব্যর্থ হয়েছিলেন একইভাবে। কেন এই ধারাবাহিক ব্যর্থতা? আমার রোমান আরও বলেন, ‘আমার একটু শূটিংয়ে সমস্যা চলছে। জুনিয়ররা অনেক ভাল করছে। আর আত্মবিশ্বাস আগের চেয়ে অনেক কমে গেছে। আসলে আত্মবিশ্বাস ফিরে পাওয়ার জন্য আমার আরও অনেক গেমস খেলার দরকার।’
মেয়েদের রিকার্ভ এককে নাজমিন খাতুনকে ৬-০ সেট পয়েন্টে হারিয়ে সোনা জিতেছেন নাসরিন আক্তার। ৬-৪ সেট পয়েন্টে শ্রাবণী আক্তারকে হারিয়ে ব্রোঞ্জ পেয়েছেন মেহেনাজ আক্তার মনিরা। কম্পাউন্ড পুরুষ এককে নেওয়াজ আহমেদ রাকিবকে ১৪৮-১৪১ স্কোরে হারিয়ে সোনা জিতেছেন অসীম কুমার দাস। এ ইভেন্টে ব্রোঞ্জ পেয়েছেন আশিকুজ্জামান।
এ ইভেন্টে ব্রোঞ্জ পেয়েছেন বন্যা আক্তার।
রিকার্ভ পুরুষ দলগত বিভাগে বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠান (বিকেএসপি) ৬-০ সেট পয়েন্টে বাংলাদেশ পুলিশ আরচারি ক্লাবকে হারিয়ে সোনা জিতেছে। বিকেএসপিকে ৫-৩ ব্যবধানে হারিয়ে এ ইভেন্টে মেয়েদের বিভাগে সেরা হয়েছে পুলিশ আর্চারি ক্লাব। রিকার্ভ মিশ্র দ্বৈতে সেরা হয়েছে বিকেএসপি।
কম্পাউন্ড পুরুষ দলগত বিভাগের ফাইনালে ঢাকা আর্মি আরচারি ক্লাব ২২৬-২২১ ব্যবধানে বাংলাদেশ আনসারকে হারিয়ে সোনা জিতেছে। ব্রোঞ্জ পেয়েছে পুলিশ আরচারি ক্লাব।
এ ইভেন্টের মেয়েদের সোনা জিতেছে ঢাকা আর্মি আর্চারি ক্লাব; তারা ২২৩-২২২ ব্যবধানে বাংলাদেশ আনসারকে হারিয়েছে। কম্পাউন্ড মিশ্র দলগত বিভাগে বিকেএসপিকে ১৪৮-১৪৫ স্কোরে হারিয়ে সেরা হয়েছে বাংলাদেশ আনসার। এ ইভেন্টে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশকে (বিজিবি) ১৫০-১৩৩ ব্যবধানে হারিয়ে ব্রোঞ্জ পেয়েছে ঢাকা আর্মি আর্চারি ক্লাব।
৭ এপ্রিল আরচারি প্রতিযোগিতার শেষদিন। ৬ এপ্রিল দুটি ইভেন্টের স্বর্ণের নিষ্পত্তি হয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2020  E-Kantha24
Technical Helped by Titans It Solution