বৃহস্পতিবার, ০৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৪:১১ অপরাহ্ন

নবাবগঞ্জে কাউয়াকুলি খালে রাতের আঁধারে চলে মাটি কেনাবেচা

আবুল হাসেম ফকির নবাবগঞ্জ থেকে:: ঢাকার নবাবগঞ্জের আগলা ইউনিয়নের দিনাজপুর এলাকায় অবস্থিত কাউয়াকুলি সরকারি খালের মাটি চুরি করে বিক্রি করছে এক শ্রেণির ভূমিখেকো। এমন অভিযোগ স্থানীয় কৃষকসহ এলাকার সচেতন মানুষদের। তারা বলেন, রাত হলেই বিভিন্ন নৌযানে করে খালের দু’পাড়ের মাটি চলে যায় ইটভাটাসহ বিভিন্ন আবাসনে।

স্থানীয়রা জানায়, কাউয়াকুলি খালটি সরকারি ভাবে খনন করা হয় বেশ কয়েক বছর আগে। যাতে কৃষকরা তাদের কৃষি ফসল নিজ জমি থেকে বাড়িতে ও হাটবাজারে নিয়ে যেতে পারে বিক্রি করার উদ্দেশে। কিন্তু স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের গাফিলতি ও তারা খালটির দেখভাল না করার কারনে দু’পাড়ের মাটি ভুমিখেকোরা রাতের আধাঁরে চুরি করে বিক্রি করার সুযোগ পাচ্ছে। এর ফলে কৃষিপণ্য নিয়ে কৃষকসহ এলাকাবাসীর নৌযানে চলাচল ব্যহত হচ্ছে।

এবিষয়ে দিনাজপুর গ্রামের কৃষক সুরুত বিশ্বাস বলেন, কাউয়াকুলি খালটির পানি আগলা ইউনিয়নসহ মুন্সিগঞ্জের সিরাজদীখান উপজেলার চিত্রকুট ইউনিয়ন ও আশেপাশের এলাকার কৃষকরা তাদের কৃষি কাজে শুকনো মৌসুমে ব্যবহার করে থাকে। এছাড়া খাল সংশ্লিষ্ট এলাকাটিতে যাতায়াতের কোন সড়ক না থাকায় প্রায় ২০ হাজার কৃষক তাদের কৃষিপণ্য নৌকাযোগে তাদের বাড়িতে নিয়ে যায়।

স্থানীয় আগলা ইউনিয়নের ৯ নং ওয়ার্ডের মেম্বার রমযান আলী বলেন, আমি মাটি চুরির বিষয়টি চেয়ারম্যানকে জানিয়েছি।

এ বিষয়ে আগলা ইউপি চেয়ারম্যান শিরিন চৌধুরী গণমাধ্যমকে বলেন, আমি এ বিষয়ে কিছুই জানি না। খোঁজ নিয়ে জানাবো।

নবাবগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মতিউর রহমান বলেন, আমি বিষয়টি জানতে পেরেছি। খোঁজ নিয়ে দোষীব্যক্তিদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2020  E-Kantha24
Technical Helped by Titans It Solution