বুধবার, ০৩ মার্চ ২০২১, ১১:৫৫ অপরাহ্ন

দুপুরে অভিজিৎ হত্যা মামলার রায়

অদালত প্রতিবেদকঃ মুক্তমনা ব্লগের প্রতিষ্ঠাতা ও বিজ্ঞান মনস্ক লেখক ব্লগার অভিজিৎ রায় হত্যা মামলার রায় দুপুর নাগাদ ঘোষণা করা হবে।

গত ৩ ফেব্রুয়ারি ঢাকার সন্ত্রাসবিরোধী বিশেষ ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. মজিবুর রহমানের আদালত যুক্তিতর্ক শুনানি শেষে রায়ের জন্য এ দিন ধার্য করেছিলেন।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী গোলাম ছারোয়ার খান জাকির দুপুর নাগার রায়ের বিষয়টি সাংবাদিকদের জানান। তিনি যুক্তিতর্ক শুনানিতে মামলা প্রমাণ করতে পেরেছেন দাবী করে সব আসামির সর্বোচ্চ শাস্তি দাবি করেছেন।মামলাটিতে চার্জশিটভূক্ত ৩৪ সাক্ষীর মধ্যে ২৮ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ শেষ হয়েছে।

অভিযুক্ত ছয় আসামিরা হলেন আনসার আল ইসলামের সামরিক শাখার প্রধান সাবেক মেজর সৈয়দ মোহাম্মদ জিয়াউল হক, মোজাম্মেল হুসাইন ওরফে সায়মন (সাংগঠনিক নাম শাহরিয়ার), আবু সিদ্দিক সোহেল (সাংগঠনিক নাম সাকিব ওরফে সাজিদ ওরফে শাহাব, আরাফাত রহমান (সাংগঠনিক নাম সিয়াম ওরফে সাজ্জাদ ওরফে শামস), শফিউর রহমান ফারাবি ও আকরাম হোসেন ওরফে আবির ওরফে আদনান ওরফে হাসিবুল ওরফে আব্দুল্লাহ।

২০১৯ সালের ১ আগস্ট মাসে পলাতক বরখাস্তকৃত মেজর সৈয়দ জিয়াউল হক জিয়াসহ ৬ আসামির বিরুদ্ধে চার্জ গঠন করে আজ সাক্ষ্য গ্রহণের তারিখ ধার্য করেন ট্রাইব্যুনাল।

ছয় আসামির মধ্যে মেজর জিয়াউল হক ও আকরাম হোসেন পলাতক। বাকি চার আসামি কারাগারে আটক আছেন। তাদের এদিন কারাগার থেকে আদালতে হাজির করা হয়।

ব্লগার ও লেখক অভিজিৎ রায় ও তার স্ত্রী নাফিজা আহমেদকে ২০১৫ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি রাত সোয়া নয়টার দিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি এলাকায় সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের পাশে কুপিয়ে জখম করে দৃর্বৃত্তরা। আহত অবস্থায় তাদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে রাত সাড়ে ১০টার মারা যান অভিজিৎ।

অভিজিৎ হত্যাকাণ্ডের ঘটনার পরদিন ২৭ ফেব্রুয়ারি অভিজিতের বাবা বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ অজয় রায় শাহবাগ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2020  E-Kantha24
Technical Helped by Titans It Solution