শুক্রবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২৩, ০৫:৩৯ অপরাহ্ন

ইনকিলাব সম্পাদকের বিরুদ্ধে নোমান গ্রুপের মানহানি মামলা

স্টাফ রিপোর্টার॥ দৈনিক ইনকিলাব পত্রিকার সম্পাদক ও প্রতিবেদকের বিরুদ্ধে ২ হাজার কোটি টাকার মানহানির মামলা দায়ের করেছে দেশের শীর্ষস্থানীয় রপ্তানিমুখী শিল্পগোষ্ঠী নোমান গ্রুপ।

বুধবার (২৩ নভেম্বর) নোমান গ্রুপের পক্ষে ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট (সিএমএম) ২৮নং আদালতে মামলাটি দায়ের করেন কোম্পানির কর্মকর্তা মুরাদুল ইসলাম। মামলায় দৈনিক ইনকিলাব পত্রিকার সম্পাদক এ এম বাহাউদ্দিন এবং প্রতিবেদক সাঈদ আহমেদকে আসামি করা হয়েছে। মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট শফি উদ্দিন মামলাটি আমলে নিয়ে আসামীদের বিরুদ্ধে সমন জারী করেন।
আগামী ২১ ডিসেম্বর সংশ্লিষ্টদের সমনের জবাব দিতে বলা হয়েছে। বাদীপক্ষের আইনজীবী এনায়েত বাতেন রাসেল এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন। গত ৩১ অক্টোবর দৈনিক ইনকিলাব পত্রিকার শেষ পৃষ্ঠায় প্রকাশিত ‘ঋণের নামে হাতিয়েছে ১০ হাজার কোটি টাকা’ শিরোনামে সংবাদ প্রকাশ করা হয়। প্রতিবেদনটি প্রকাশ করার ক্ষেত্রে কোনো ধরনের যাচাই-বাছাই না করে ও প্রেস কাউন্সিল অ্যাক্ট অমান্য করে এবং সাংবাদিকতার পেশাদারিত্ব বাইরে গিয়ে সম্পূর্ণ অসত্য, মনগড়া, কাল্পনিক, অবাস্তব ও ভিত্তিহীন তথ্য প্রকাশিত হয়েছে বলে দাবি করে নোমান গ্রুপ। এই সংবাদের কারণে নোমান গ্রুপের দেশে ও বহির্বিশ্বে হেয় প্রতিপন্ন এবং দুই হাজার কোটি টাকার আর্থিক ও সুনাম ক্ষতি হয়েছে দাবি করে দন্ডবিধির ৫০০ ধারায় মানহানির মামলা দায়ের করেন বলে জানিয়েছেন বাদী পক্ষের আইনজীবী এনায়েত বাতেন রাসেল।

অ্যাডভোকেট এনায়েত বাতেন রাসেল আরো জানান, নোমান গ্রুপ টেক্সটাইল ও গার্মেন্টস সেক্টরে দেশের শীর্ষস্থানীয় রপ্তানি কারক শিল্প গ্রুপ। প্রতিবছর রপ্তানি খাত থেকে ১.২ বিলিয়ন ডলার ডলার আয় করে জাতীয় অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখে আসছে। যার কারণে বারবার জাতীয় রফতানি ট্রফি সহ দেশ বিদেশে বিভিন্ন সম্মানজনক স্বীকৃতি লাভ করে আসছে নোমান গ্রুপ। তিনি বলেন, দৈনিক ইনকিলাব পত্রিকার প্রকাশিত মিথ্যা বানোয়াট ভিত্তিহীন উদ্দেশ্যে প্রণোদিত প্রতিবেদন প্রকাশ কারণে দেশে বিদেশে নোমান গ্রুপের মানহানি হয়েছে এবং দেশের এই পরিস্থিতিতে আন্তর্জাতিক বাজারে ক্রয়াদেশ কমে আসছে।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2020  E-Kantha24
Technical Helped by Titans It Solution