শুক্রবার, ২৮ Jul ২০১৭ | ১৩ শ্রাবণ ১৪২৪ English Version

রণবীর-দীপিকার বিয়ের আগেই বিচ্ছেদের গুঞ্জন

বিনোদন ডেস্ক:: অনেক দিন ধরেই চুটিয়ে প্রেম করছেন বলিউড অভিনয়শিল্পী রণবীর সিং ও দীপিকা পাড়ুকোন। কিছুদিন আগে তাদের প্রেমের সম্পর্কে ভাঙন ধরেছে এমন খবর বলিউডপাড়ায় চাউর হয়েছিল। সর্বশেষ তা গুঞ্জন পর্যন্তই রয়ে যায়। আবারো বলিউপাড়ায় গুঞ্জন ওঠেছে, বিচ্ছেদ হয়েছে দীপিকা-রণবীরের। ভারতীয় একটি সংবাদমাধ্যম এ খবর প্রকাশ করেছে। একটি সূত্রের বরাত দিয়ে প্রকাশিত প্রতিবেদে জানানো হয়েছে, রণবীর সিংহ নাকি এখন অন্য কারো সঙ্গে ডেট করছেন। দীপিকার সঙ্গে সম্পর্ক ভাঙতেই, নতুন একটি সম্পর্কে জড়িয়েছেন তিনি। বি-টাউন সূত্রের দাবি, রণবীর বহুদিন ধরেই দীপিকাকে বিয়ের জন্য চাপ দিচ্ছিলেন কিন্তু দীপিকা মোটেই সায় দেননি। দীপিকার মত, বিয়ে করলে তার প্রভাব ক্যারিয়ারের উপর পড়বে। আর দীপিকার কাছে ক্যারিয়ারই প্রথম। আর তারপরই নাকি সম্পর্কের ইতি টানার সিদ্ধান্ত নেন রণবীর। সূত্রটি আরও জানিয়েছে, দীর্ঘদিন ধরে অপেক্ষা করছেন রণবীর। দীপিকা যখন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে শুটিং করছিলেন তখন সম্ভব হলেই দীপিকার সঙ্গে দেখা করতে যেতেন রণবীর সিং। কিছুদিন আগে ভিন ডিজেলের সঙ্গে দীপিকার প্রেমের গুজব ছড়ালে তাতেও কান দেননি তিনি। তবে এবার নাকি ধৈর্য্যের বাঁধ ভেঙে গেছে এই অভিনেতার।

অক্সিজেন ছাড়া ১৯ হাজার ফুট উচ্চতায় ফুটবল!

স্পোর্টস ডেস্ক:: ফুটবলারদের বয়স ১৮ থেকে ৬৬। তারা বিভিন্ন দেশের নাগরিক। কেউ কাউকে সেভাবে চেনেন না। তবে একটা বিষয় সবাই জানেন তাদের অনেক উঁচুতে উঠতে হবে। যেখানে তাঁরা স্কিল দেখাবেন, সেই মাঠ ছাইয়ে ভরা। উচ্চতা সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে ১৯ হাজার ফুট উঁচুতে। যেখানে নিঃশ্বাস নেওয়া কঠিন, সেখানেই ৯০ মিনিট দাপালেন ২২ জন মহিলা ফুটবলার। আফ্রিকার সর্বোচ্চ শৃঙ্গ মাউন্ট কিলিমাঞ্জারোয় তাদের এই কীর্তি দুনিয়ায় বেনজির। আকাশ ছোঁয়ার দিনে ওই যোদ্ধারা বলছেন, ব্যবধান মুছিয়ে দেওয়ার ছিল। তাঁরা এলেন, দেখলেন এবং জয় করলেন। প্রায় ১৯ হাজার ফুট উঁচু পাহাড়ে উঠে থামা নয়। সেখানে নব্বই মিনিট ধরে ফুটবল খেললেন ৩০ জন মহিলা ফুটবলার। এত উঁচুতে ফুটবল এর আগে দুনিয়ার কোথাও দেখা যায়নি। আফ্রিকার উচ্চতম শৃঙ্গ মাউন্ট কিলিমাঞ্জারোর নজির গড়ার দিনে মুখোমুখি হয়েছিল ভলক্যানো এফসি এবং গ্লেসিয়ার এফসি। ম্যাচ গোলশূন্য থাকলেও ফুটবলাররা বলছেন তাদের এই উদ্যোগ ক্রীড়া জগতে বৈষম্যের বিরুদ্ধে। একই খেলা। অথচ পুরুষ ও মহিলাদের রোজগার আকাশ-পাতাল তফাত। রজার ফেডেরার-সেরেনা উইলিয়ামস থেকে শুরু করে ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডা-মার্তা। পারফরম্যান্স করে গেলেও দূরত্ব প্রতিদিনই বাড়ছে। এর প্রতিবাদ জানাতে ৩০ জন ফুটবলার সাত দিন ট্রেক করে উঠেছিলেন তানজানিয়ার কিলিমাঞ্জারোতে। ওপরে ওঠার যুদ্ধের পর তাঁরা পাহাড়ের চূড়োয় পৌঁছে দেখেন খেলার সামান্য জায়গা নেই। ভাঙা পাথর আর ছাইয়ের ঢিবিকে সামলে তারা মেতে ওঠেন ৯০ মিনিটের ম্যাচে। সিরিয়া, কাতার, ইন্দোনেশিয়া, নিউজিল্যান্ড, পেরুর মতো দুনিয়ার ২২টি দেশের ফুটবলাররা গিয়েছিলেন কিলিমাঞ্জারোতে। বলিভিয়ার রাজধানী লা-পাজের ১২ হাজার ফুটের ফুটবল মাঠে খেলতে গিয়ে কার্যত নাকাচি-চোবানি খায় ব্রাজিল, আর্জেন্টিনা, উরুগুয়ের মতো তাবড় দলগুলি। অক্সিজেনের সমস্যা সবার মাথাব্যথা। ১২ হাজারেই এই অবস্থা। ১৯ হাজার ফুটের কিলিমাঞ্জারোয় অক্সিজেনের ব্যাপক টান। তবুও হাল ছাড়েননি এই যোদ্ধারা। অক্সিজেনের ঘাটতি নিয়েও তারা বুঝিয়েছেন ছেলেদের থেকে মেয়েরা কম যায় না। ১৯ হাজার ফুট ছোঁয়ার দিনে আরও একটা শপথ নিয়েছেন। এবার এই গ্রহের সর্বনিম্ন স্থান জর্ডনের মরুসাগরে মহিলা ফুটবলাররা খেলতে চাইছেন। সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে ১৩০০ ফুট নিচে নেমে ক্রীড়া জগতকে আরও একবার প্রাচীর ভাঙার বার্তা দেওয়ার প্রস্তুতি এভাবেই শুরু হয়েছে।

জয়ের ৪৭তম জন্মদিন আজ

ই-কণ্ঠ ডেস্ক রিপোর্ট:: বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের দৌহিত্র, আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছেলে সজীব ওয়াজেদ জয়ের ৪৭তম জন্মদিন আজ (বৃহস্পতিবার)। মহান মুক্তিযুদ্ধের সময় অবরুদ্ধ ঢাকায় ১৯৭১ সালের ২৭ জুলাই প্রখ্যাত পরমাণু বিজ্ঞানী ড. এম এ ওয়াজেদ মিয়া ও শেখ হাসিনা দম্পতির প্রথম সন্তান জয়ের জন্ম হয়। দেশ স্বাধীনের পর তার নাম রাখেন নানা শেখ মুজিবুর রহমান। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট ঘাতক চক্রের হাতে বঙ্গবন্ধু সপরিবারে নিহত হওয়ার সময় মা শেখ হাসিনা এবং খালা শেখ রেহানার সঙ্গে লন্ডনে থাকায় প্রাণে বেঁচে যান জয়। পরবর্তীতে জয় তার মায়ের সঙ্গে ভারতে রাজনৈতিক আশ্রয় নেন। জয়ের শৈশব ও কৈশোর কেটেছে ভারতে। জয় পড়াশোনা করেন ইন্ডিয়ার নৈনিতালের সেন্ট জোসেফ কলেজ ও তামিলনাড়ুর পালানি হিলসের কোডাইকানাল ইন্টারন্যাশনাল স্কুলে। এরপর তিনি বেঙ্গালুরু বিশ্ববিদ্যালয় থেকে কম্পিউটার সায়েন্স, পদার্থ এবং গণিতে ব্যাচেলর অব সায়েন্স ডিগ্রি অর্জন করেন। শেখার অদম্য ইচ্ছায় তিনি পরবর্তীতে টেক্সাস ইউনির্ভাসিটি থেকে কম্পিউটার ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে আরেকটি ব্যাচেলর ডিগ্রি অর্জন করেন। সবশেষে তিনি হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয় থেকে লোকপ্রশাসনে স্নাতোকোত্তর শেষ করেন। ২০০৭ সালে জয় ওয়ার্ল্ড ইকোনোমিক ফোরাম কর্তৃক গ্লোবাল লিডার অব দ্য ওয়ার্ল্ড নির্বাচিত হন। ২০০৮ সালের ২৯ ডিসেম্বরের জাতীয় নির্বাচনে আওয়ামী লীগের ইশতেহারে ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার বিষয়টি নিয়ে আসেন। পর্দার অন্তরালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পাশে থেকে গোটা দেশে তথ্য-প্রযুক্তির বিপ্লব ঘটান এই তথ্য-প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞ। ২০১৪ সালের ১৭ নভেম্বর সজীব ওয়াজেদ জয়কে অবৈতনিকভাবে প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তিবিষয়ক উপদেষ্টা পদে নিয়োগ দেয়া হয়। ২০১০ সালের ২৫ ফেব্রুয়ারি সজীব ওয়াজেদ জয়কে তার পিতৃভূমি রংপুর জেলা আওয়ামী লীগের প্রাথমিক সদস্যপদ দেয়া হয়। এর মধ্যদিয়ে তিনি আনুষ্ঠানিকভাবে রাজনীতিতে আসেন। গত সংসদ নির্বাচনের আগে বিভিন্ন রাজনৈতিক কর্মসূচিতে অংশ নেন ও দেশের বিভিন্ন এলাকা সফরের মধ্যদিয়ে আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের মনোবল চাঙ্গা করার পাশাপাশি সাধারণ মানুষের মাঝেও বেশ ভালো প্রভাব সৃষ্টি করতে সক্ষম হয়েছেন। তথ্য-প্রযুক্তি, রাজনীতি, সামাজিক, অর্থনৈতিক, শিক্ষাবিষয়ক বিভিন্ন কর্মসূচিতে অংশ নিয়ে তথ্য-প্রযুক্তির বিকাশ, তরুণ উদ্যোক্তা তৈরিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে যাচ্ছেন জয়। বিশেষ করে বিভিন্ন কর্মসূচির মাধ্যমে দেশের তরুণদের দেশপ্রেমে উজ্জীবিত করে দেশের কাজে আত্মনিয়োগ করাতে সক্ষম হয়েছেন তিনি। দেশ গঠনে তরুণদের মতামত, পরামর্শ শুনতে তিনি ‘লেটস টক’ ও ‘পলিসি ক্যাফে’ দুটি প্রোগ্রাম শুরু করেন। এছাড়া তিনি তরুণ উদ্যোক্তা ও তরুণ নেতৃত্বকে এক সঙ্গে যুক্ত করার পাশাপাশি প্রশিক্ষিত করতে তরুণদের বৃহত্তম প্লাটফর্ম ‘ইয়াং বাংলার’ সূচনা করেন। বর্তমানে বেশিরভাগ সময়েই দেশের বাইরে অবস্থান করতে থাকা সজীব ওয়াজেদ জয় বাংলাদেশের রাজনীতি ও সরকারের গৃহীত বিভিন্ন কর্মসূচি নিয়ে ফেসবুকে মতামত ব্যক্ত করে থাকেন।

প্রধান সংবাদ


সর্বশেষ সংবাদ

গণতন্ত্রের ভিতরে থেকেই জঙ্গি দমন করা হচ্ছে : ইনু

শৈলকুপায় বাল্যবিয়ে বন্ধ ॥ বর ও কনের বাবার কারাদন্ড

ঝিনাইদহে ৩ দিন ব্যাপী ফলদ ও বৃক্ষ মেলার উদ্বোধন

মধুখালীতে মরিচ চাষীদের মাথায় হাত

বাঘায় ধর্ষককে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ

নবাবগঞ্জের অধিকাংশ সড়কে ড্রেনেজ ব্যবস্থা না থাকায় পথচারীদের ভোগান্তি

বৈরী আবহাওয়ায় শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি ফেরি চলাচল ব্যাহত, বন্ধ রয়েছে ছোট লঞ্চগুলো

ফরিদপুরে পৌরসভা কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ধর্মঘট পালন

কালীগঞ্জে বাল্য বিয়ে বন্ধ করলেন ইউএনও


আজকের সব সংবাদ

আত্রাইয়ে প্রাথমিক বিদ্যালয় গোয়ালঘরে পরিণত

নাজমুল হক নাহিদ, আত্রাই (নওগাঁ) প্রতিনিধি॥ নওগাঁর আত্রাইয়ে একটি প্রাথমিক বিদ্যালয় এখন গোয়ালঘরে পরিণত হয়েছে। সরকারের অর্ধকোটি টাকা ব্যায়ে সেখানে একটি দৃশ্যমান ভবন তৈরি করা হলেও ভবনটি এখন পাঠশালার পরিবর্তে জনগণের খড়িঘর ও ছাগল গরু রাখার গোয়ালঘরে পরিণত হয়েছে। স্থানীয়দের অভিযোগ এখানে কোন শিক্ষক না থাকায় শিক্ষার্থীরা এ বিদ্যালয়ে যায় না। ফলে অঘোষিত ভাবে দীর্ঘদিন থেকে বন্ধ রয়েছে এ বিদ্যালয় ভবনটি। সরেজমিনে তথানুসন্ধানে জানা যায়, উপজেলার বিশা ইউনিয়নের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন একটি গ্রামের নাম তেজনন্দী। প্রায় সাড়ে চার হাজার লোকের বাস এ গ্রামে। এখানে নেই কোন প্রাথমিক বিদ্যালয়, নেই কোন হাইস্কুল, নেই কোন মাদ্রসা। এ গ্রামের দুই শতাধিক শিশুরা প্রাথমিক শিক্ষা অর্জনের জন্য জীবনের ঝুঁকি নিয়ে নদী পারি দিয়ে তাদের যেতে হয় বৈঠাখালী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে। অথবা ২ কিলোমিটার মেঠোপথ অতিক্রম করে যেতে হয় সমসপাড়া না হয় যেতে হয় শ্রীধর গুড়নই সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে। গ্রামের শিশুদের এ দুর্দশা লাঘবে ১৯৯০ সালের দিকে ওই গ্রামের মোশারফ হোসেন, ফয়েজ উদ্দিন, রনজিৎ কুমার সরকার ও নাজমা বেগম একটি প্রাথমিক বিদ্যালয় স্থাপনের জন্য নিজস্ব অর্থায়নে বিদ্যালয়ের নামে ৩৩ শতক জায়গা ক্রয় করে চাটাইয়ের বেড়া ও টিনের ছাউনি দিয়ে ঘর নির্মাণ করে পাঠদান শুরু করেন। তারা ১৯৯০ সাল থেকে ২০০৮ সাল পর্যন্ত বিনা বেতনে পাঠদান কার্যক্রম চালিয়ে আসেন। এরই এক পর্যায় প্রাকৃতিক দুর্যোগে ঘরটি বিধ্বস্ত হলে অর্থাভাবে এটি আর সংস্কার করতে না পারায় সেখানে পাঠদান কার্যক্রম বন্ধ হয়ে যায়। ফলে ওই বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা বিভিন্ন দিকে ছড়িয়ে যায়। এদিকে বর্তমান সরকার ২০১২ সালে বিদ্যালয় বিহীন এলাকায় ১৫০০টি প্রাথমিক বিদ্যালয় স্থাপনের একটি প্রকল্প গ্রহন করেন। সে প্রকল্পের আওতায় ২০১৩ সালে স্থানীয় সাংসদ ইসরাফিল আলমের প্রচেষ্টায় প্রায় ৫১ লাখ টাকা ব্যয়ে তেজনন্দী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় নামে একটি দৃশ্যমান ভবন নির্মাণ করা হয়। ভবন নির্মাণ করা হলেও সেখানে কোন শিক্ষক নিয়োগ না দেয়ায় বর্তমানে সেটি গোয়ালঘরে পরিণত হয়েছে। এ ব্যাপারে ওই গ্রামের মোঃ বাবু বলেন, এত সুন্দর ভবন থাকলেও শিক্ষক না থাকায় আমাদের শিশুদেরকে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে নদী পার হয়ে বৈঠাখালী স্কুলে যেতে হয়। প্রতিষ্ঠাতা শিক্ষক রনজিত কুমার সরকার বলেন, আমরা চেষ্টা করেছিলাম বিদ্যালয়টি চালু রাখতে। কিন্তু ভবন হওয়ার পর আমাদেরকে শিক্ষকতার আর সুযোগ দেয়া হয়নি। উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার রোখছানা আনিছা বলেন, আমি নতুন যোগদান করেছি। বিদ্যালয়টি এভাবে পরিত্যক্ত এটি আমার জানা ছিল না। অবশ্যই আমি এব্যাপারে উপরে লিখব এবং দ্রুত শিক্ষক নিয়োগের মধ্যদিয়ে বিদ্যালয়টি পুনঃচালুর চেষ্টা করবো।

সেতাবগঞ্জ পৌরসভার কর্মকর্তা-কর্মচারীদের অর্ধদিবস কর্মবিরতি

মোঃ শামসুল আলম বোচাগঞ্জ (দিনাজপুর) প্রতিনিধি॥ আজ সোমবার সারাদেশের ন্যায় দিনাজপুরের সেতাবগঞ্জ পৌরসভার কর্মকর্তা-কর্মচারীরা তাদের ন্যায্য দাবী আদায়ের লক্ষে অর্ধদিবস কর্মবিরতি পালন করেছে। কর্মবিরতি চলাকালীন সময় সেতাবগঞ্জ পৌর কর্মকর্তা/কর্মচারী এসাসিয়েশনের সভাপতি ভরত চন্দ্র পাল, সেক্রেটারী সেলিম হায়দার, সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ মাহামুদ, পৌরসভার সচিব হরিপদ রায়, প্রশাসনিক কর্মকর্তা মোঃ রুবেল হক, হিসাব রক্ষন কর্মকর্তা সন্ধ্যা রানী সরকার, সহকারী কর নির্ধারক মোঃ রহমত আলী, কর আদায়কারী যথাক্রমে আসাদুজ্জামান, গোলাম মোস্তফা লিটন, লাইসেন্স পরিদর্শক মোঃ নুরনবী কনঞ্জারভেন্সি ইন্সপেক্টর খগেন্দ্রনাথ রায়, কার্যসহকারী মোঃ লুৎফুল আলম সহ সকল পর্যায়ের কর্মকর্তা/কর্মচারী উপস্থিত ছিলেন।

প্রতিপক্ষকে ফাঁসানোর জন্য মিথ্যা অপহরন মামলার নাটক, ভিকটিম ৬ বছর পর উদ্ধার

মাদারিপুর প্রতিনিধি॥ প্রতিপক্ষকে ফাঁসানোর লক্ষ্যে দায়েরকৃত মিথ্যা অপহরন মামলায় অবশেষে ভিকটিমকে ৬ বছর পর সদর থানা পুলিশ মস্তফাপুর পর্বত বাগানের নিকটে ছোট বাড্ডা গ্রামের জয়হালদারের বাড়ি থেকে গতকাল রবিবার সন্ধা ৬ টায় গ্রেফতার করেছে। ভিকটিমের নাম পিয়াংকা ভক্ত (২০)। সে রাজৈর উপজেলার চৌরাশী গ্রামের প্রেমানন্দ ভক্তের মেয়ে। সদর থানার এসআই কামরুজ্জামান বলেন, পারিবারিক বিরোধের কারনে চৌরাশী গ্রামে একই বংশের সুজন ভক্তের ভাবী ববিতা ভক্তকে অনুমান ৬ বছর আগে কুপিয়ে জখম করে পিয়াংকা ভক্তের পিতা প্রেমানন্দ ভক্ত। ওই ঘটনায় মামলা হলে অপহরনের ঘটনার নাটক সাজিয়ে প্রেমানন্দ ভক্তের মেয়ে প্রিয়াংকাকে লুকিয়ে রেখে তার স্ত্রী রাজলক্ষী ভক্ত বাদী হয়ে ববিতা ভক্তের স্বামী সুবোধ ভক্ত দেবর সুজন ভক্তসহ ৬ জনকে আসামী করে আদালতে একটি মামলা করে। ৬ বছর লুকিয়ে থাকার পর সুজন ভক্তের লোকজন ভিকটিমের অবস্থান জানতে পেরে পুলিশকে খবর দেয়। ওসি কামরুল হাসান বলেন, বিষয়টি তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। ভিকটিমকে আদালতে পাঠানো হবে।

ফের বান্দরবানে পাহাড় ধস, নিখোঁজ ৫

ই-কণ্ঠ ডেস্ক রিপোর্ট:: টানা ভারী বর্ষণে বান্দরবানে আবারও পাহাড় ধসে পাঁচজন নিখোঁজ হয়েছে। আজ রবিবার সকাল ১১টায় রুমা সড়কের দলিয়ান পাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। স্থানীয়রা জানায়, বান্দরবান থেকে রুমা উপজেলার উদ্দেশে এবং রুমা থেকে বান্দরবানের উদ্দেশে ছেড়ে যাওয়া ২টি যাত্রীবাহী বাস বিধ্বস্ত রুমা সড়কের দলিয়ান পাড়া এলাকায় পৌঁছায়। দুই পাশের যাত্রীরা বাস পরিবর্তনের জন্য ভাঙ্গা রাস্তায় পায়ে হেঁটে পার হওয়ার সময় বৃষ্টিতে আবারও পাহাড় ধস হয়। এ সময় পাহাড়ের মাটি চাপা পড়ে অনেক যাত্রীরা। আহত অবস্থায় ৩ যাত্রীকে জীবিত উদ্ধার করে শ্রমিকরা। তবে এখনো ৫ জন যাত্রী নিখোঁজ রয়েছে। খবর পেয়ে সেনাবাহিনী এবং স্থানীয়রা ঘটনাস্থলে গিয়ে উদ্ধারের তৎপরতা চালাচ্ছে। তবে প্রচুর পরিমাণে বৃষ্টি হওয়ায় উদ্ধার তৎপরতা ব্যাহত হচ্ছে। পরিবহন শ্রমিক স্বপন দাস জানান, গত মাসের ১২ জুন অবিরাম বর্ষণে বান্দরবান-রুমা উপজেলা সড়কের দলিয়ান পাড়া এলাকায় পাহাড় ধসে সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। সেনাবাহিনী কয়েক দফায় পাহাড়ের মাটি সরানোর চেষ্টা করলেও বৃষ্টি অব্যাহত থাকায় পারেনি। তবে সড়কের দু’পাশে যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক ছিল। বিধ্বস্ত ভাঙ্গা সড়ক পায়ে হেঁটে যাত্রীরা গাড়ি পরিবর্তন করে আসছিল। রবিবার সকালেও যাত্রীরা পায়ে হেঁটে গাড়ি পরিবর্তন করতে যাওয়ার সময় পাহাড় ধসে অনেক যাত্রী মাটি চাপা পড়েন। আহত অবস্থায় তিনজনকে উদ্ধার করা হয়েছে। তবে আরও পাঁচজন নিখোঁজে রয়েছে। বান্দরবানের মৃত্তিকা সংরক্ষণ কেন্দ্রের বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা মাহাবুবুল ইসলাম জানান, আজ সকাল ৯টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘন্টায় বান্দরবানে ৭৮ মি.মি. বৃষ্টিপাত হয়েছে। এখনও ভারী বৃষ্টিপাত অব্যাহত রয়েছে।

মধুখালীতে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বৃক্ষ রোপন উদ্বোধন

শাহজাহান হেলাল, মধুখালী(ফরিদপুর)প্রতিনিধি॥ দেশ ব্যাপি প্রাথমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বৃক্ষ রোপন কর্মসূচীর অংশ হিসেবে মধুখালীতে বৃক্ষ রোপনের কর্মসূচীর উদ্বোধন করা হয়েছে। আজ রোববার বেলা ১২টায় মধুখালী মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক অলকা বিশ্বাসের সভাপতিত্বে বিদ্যালয়ের শ্রেণী কক্ষে আলোচনায় অংশ নেন উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা শারমিন নাছিমা বানু, সহকারী উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মোহাম্মদ দেলোয়ার হোসেন, নাসিমা আক্তার, সহকারী শিক্ষক ও উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সাধারন সম্পাদক মোঃ হাবিবুর রহমান, সহকারী শিক্ষক মো. আশিকুল আমীনসহ প্রমুখ। আলোচনা পরবর্তী মধুখালী মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের আঙ্গীনায় উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা শারমিন নাছিমা বানু একটি ফলজ গাছের চারা রোপন করে উপজেলা ব্যাপি বৃক্ষ রোপনের উদ্বোধন ঘোষনা করেন। এ সময় সহকারী শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও অভিভাবকেরা উপস্থিত ছিলেন।

রাজবাড়ীতে জাতীয় পাবলিক সার্ভিস দিবস পালিত

রাজবাড়ী প্রতিনিধি:: রাজবাড়ীতে জাতীয় পাবলিক সার্ভিস দিবস ২০১৭ উপলক্ষে আলোচনা সভা ও সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। আজ রোববার সকাল ১১টায় দিবস উদযাপন উপলক্ষে জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সামনে থেকে একটি বনাঢ্য শোভাযাত্রা বের করা হয়। শোভাযাত্রা শেষে জেলা শিল্পকলা একাডেমীতে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা সভায় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক সার্বিক রেবেকা খানের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন প্রধান অতিথি জেলা প্রশাসক মোঃ শওকত আলী। অন্যন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সিভিল সার্জন মোঃ রহিম বক্স, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সিলেট বিভাগের পরিচালক শ্রী নিবাস দেবনাথ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ তারিকুল ইসলাম প্রমুখ। জেলা প্রশাসক মোঃ শওকত আলী বলেন, সংবিধানের কোথাও কর্মকর্তা লেখা নেই। সংবিধানে বলা হয়েছে সরকারি কর্মচারী। আমরা পাবলিকের কর্মচারী তাই সকল বিভাগ থেকে জনগণকে আন্তরিক ভাবে সেবা প্রদান করতে সকল কর্মচারীদের প্রতি আহ্বান জানান তিনি। উপস্থাপনা করেন সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার নুরমহল আশরাফি। আলোচনা সভা শেষে ১৫জন সরকারি কর্মচারীকে সম্মাননা প্রদান করা হয়।

জাতীয়

বিদেশিদের প্রতারণার অর্থ লেনদেনকারী ১২ ব্যাংক শনাক্ত

ভোগ নয়, ত্যাগের মানসিকতায় মানব সেবায় আ’লীগ: প্রধানমন্ত্রী

জয়ের ৪৭তম জন্মদিন আজ

‘ক’ তালিকায় ইয়াবা, সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড!

রাজধানীতে জলাবদ্ধতা নিরসনে মন্ত্রীর 'প্রমিজ'

ইন্টারন্যাশনাল চ্যাম্পিয়ন অ্যাওয়ার্ড পেলেন প্রধানমন্ত্রী কন্যা পুতুল

সাউদিয়া এয়ারলাইন্সে আগুন, রক্ষা পেল ৩১৩ হজযাত্রী

রাজনীতি

অবহেলায় সার্কিট হাউস ছেড়ে হোটেলে মির্জা ফখরুল

খালেদা লন্ডনে যাওয়ায় সরকারের ঘুম হারাম : রিজভী

খালেদা জিয়ার লন্ডন সফর নিয়ে অপপ্রচার হচ্ছে : দুদু

নির্বাচনকালীন সরকার নিয়ে দুই মেরুতে দুই দল॥ পাল্টাপাল্টি বক্তব্যে উত্তপ্ত রাজনীতির মাঠ

নাশকতার তিন মামলায় বুলুর জামিন মঞ্জুর

জামিনে মুক্তি পেলেন জয়নুল আবদিন

তারেক রহমানের কাছে বাংলাদেশি পাসপোর্ট নেই

আন্তর্জাতিক

সামরিক বাহিনীতে ‘তৃতীয় লিঙ্গ’ নিষিদ্ধের ঘোষণা ট্রাম্পের

গুজরাটে ভয়াবহ বন্যায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১১১

কাতার, যুক্তরাষ্ট্র ও তুরস্ক যৌথ সামরিক মহড়া

মুম্বাইয়ে ভবন ধসে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১৭

তালেবানদের অস্ত্র যোগাচ্ছে রাশিয়া?

সৌদি আরবের শাসনভার এখন ক্রাউন প্রিন্সের হাতে

অবশেষে যুক্তরাষ্ট্র ছাড়লেন বিতর্কিত রুশ রাষ্ট্রদূত

অর্থ ও বাণিজ্য

বেসরকারি খাতে ঋণপ্রবাহ ক‌মি‌য়ে নতুন মুদ্রানীতি ঘোষণা

অতীতের সব রেকর্ড ছাড়িয়ে সঞ্চয়পত্র বিক্রি

ডি-৮ বাণিজ্য চুক্তিতে মন্ত্রিসভার সায়

হজযাত্রীদের জন্য ইসলামী ব্যাংকের উপহার

বাংলাদেশকে ৫২.৬০ কোটি ডলার দেবে এডিবি

মালয়েশিয়ায় ৪৭ হাজার কোটি টাকা পাচার

খেলাপি ঋণের ৩৫ শতাংশ ১২০ জনের পকেটে

আইন-আদালত

আলমগীর হত্যা: তিন ছিনতাইকারীর মৃত্যুদণ্ড

সুপ্রিম কোর্ট বারের সভাপতি-সম্পাদকসহ ৩৮ জনের বিরুদ্ধে পরোয়ানা

সাত খুন মামলার হাইকোর্টের রায় ১৩ আগস্ট

২৪ ঘণ্টার মধ্যে সিটিসেল চালুর নির্দেশ

মওদুদের মামলা চলবে, আদালত বদলির নির্দেশ

খালেদার দুই মামলার পরবর্তী শুনানি ২৭ জুলাই

গেজেট প্রকাশে ফের এক সপ্তাহ সময় পেল রাষ্ট্রপক্ষ

বিজ্ঞান-প্রযুক্তি

অ্যাপেলকে ৫০৬ বিলিয়ন ডলার জরিমানা

গোপনে চীনের সঙ্গে গাড়ির ব্যাটারি তৈরি করছে অ্যাপল

গুগলে আসছে ফেইসবুকের মতো নিউজ ফিড

বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণের কাজ ৮৮ ভাগ শেষ

মশা নিধনে মাইক্রোসফট ও গুগলের নতুন প্রযুক্তি

পৃথিবীটাও শুক্র গ্রহের মতো হয়ে যেতে পারে: স্টিফেন হকিং

মঙ্গল গ্রহে বিষাক্ত রাসায়নিক!

সর্বশেষ ফটো

সম্পাদক : মো. আলম হোসেন
প্রকাশনায় : এ. লতিফ চ্যারিটেবল ফাউন্ডেশন
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়:
সরদার নিকেতন
হাসনাবাদ, দক্ষিণ কেরাণীগঞ্জ, ঢাকা-১৩১১।

ফোন: ০২-৭৪৫১৯৬১
মুঠোফোন: ০১৭৭১৯৬২৩৯৬, ০১৭১৭০৩৪০৯৯
ইমেইল: ekantho24@gmail.com